১৫-১৭ মে চট্টগ্রামে ইউএনডব্লিউটিএর জয়েন্ট কমিশনের বৈঠক

37

যুগবার্তা ডেস্কঃ আগামী ১৫ থেকে ১৭ মে বন্দর নগরী ও বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামের হোটেল রেডিসন ব্লুতে 29th Joint Commission Meeting of UNWTO Commission for Asia and the Pacific (CAP) and the Commission for South Asia (CSA) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এটি পর্যটন শিল্পে বাংলাদেশের এগিয়ে যাবার একটি স্বীকৃতি। UNWTO র মহাসচিব ড. তালেব রিফাই এ সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন।
মঙ্গলবার সকালে বিটিবির সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত প্রেস কনফারেন্সে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি এ তথ্য জানান।
মন্ত্রী জানান UNWTO Joint Commission Meeting of CAP & CSA বিশ্ব পর্যটন সংস্থার অন্যতম বৃহৎ ইভেন্ট। তিন দিন ব্যাপী ইভেন্টটি’তে CAP ভুক্ত ২১ টি এবং CSA ভুক্ত ৯ টি দেশ থেকে মন্ত্রী, সচিব, উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাসহ পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ এবং UNWTO এর এফিলিয়েটেড প্রতিষ্ঠানসমূহ অংশগ্রহণ করবেন। দেশ বিদেশের তিনশ জন প্রতিনিধি এ আন্তর্জাতিক ইভেন্টে অংশ নেবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি বলেন এ আয়োজনের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেশের ভাবমূর্র্তি বৃদ্ধি পাবে; আন্তর্জাতিক ইভেন্ট আয়োজনে বাংলাদেশের সক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে; বর্হিবিশ্বে বাংলাদেশ একটি অন্যতম MICE(Meeting, Incentive, Cooperation & Exhibition) destination হিসেবে পরিচিতি পাবে, সার্বিকভাবে বাংলাদেশের পর্যটন শিল্প বিকশিত হবে সর্বোপরি পাহাড়, নদী ও সাগর বেষ্টিত ঐতিহ্যবাহী চট্টগ্রাম বিশ্ববাসীর দৃষ্টি আকর্ষণ করবে, এ শহরের ব্র্যান্ডিং হবে যা পর্যটনকেই শুধু নয় বিনিয়োগ ও বাণিজ্যেও নতুন গতি আনবে।
আমি বিনয়ের সাথে আপনাদের জানাচ্ছি পর্যটনক্ষেত্রে গত তিন বছরে বাংলাদেশ অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে। যদিও টুরিজম ক্ষেত্রে এই অঞ্চলে এখনও ঐ অর্থে কর্তৃত্ব নিতে পারিনি তবে গত তিন বছরে আমাদের কৃতিত্বকে স্বীকার করে নিয়েছে গোটা বিশ্ব ইউএনডাব্লিউটিএর মাধ্যমে এবং সেই কৃতিত্বেরই একরকম স্বীকৃতি আসন্ন এই সম্মেলনের জন্য বাংলাদেশকে বেছে নেয়া।
প্রেস কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন সচিব এস এম গোলাম ফারুক, বিটিবির সিইও ড. নাসির উদ্দিন প্রমুখ।
সম্মেলন সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করতে হবে www.asiapacific.unwto.org/event/29th -joint-meeting GB এই ঠিকানায়।