১৫ ডিসেম্বর থেকে সশস্ত্র বাহিনী নির্বাচনী মাঠে থাকবে–সিইসি

মাহাবুবুর রহমানঃ ১৫ ডিসেম্বর থেকে সশস্ত্র বাহিনীর ছোট ছোট টিম নির্বাচনের মাঠে থাকবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার ।

বৃহস্পতিবার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক বিশেষ সভায় পুলিশ বাহিনীর উদ্দেশে এ সব কথা বলেন সিইসি নুরুল হুদা।

এসময় তিনি বলেন, ১৫ ডিসেম্বরের পর সশস্ত্র বাহিনীর ছোট টিম পুলিশের সঙ্গে দেখা করবে। প্রতিটি জেলায় থাকবে সশস্ত্র বাহিনীর এসব ছোট ছোট টিম। এসব টিমকে নিয়ে সমন্বয় করে কাজ করতে হবে পুলিশকে।

অনুষ্ঠানে পুলিশ বাহিনীকে ১২ দফা নির্দেশনা দিয়ে সিইসি বলেন, বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের তথ্য সংগ্রহ করার কথা আমরা বলিনি। এটা আপনারা করবেন না। কারণ এটা নিয়ে নানা প্রশ্ন ওঠে। ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা এতে বিব্রত হন। আমরা এটা চাই না।

তফসিল ঘোষণার পর কাউকে গ্রেফতারি পরোয়ানা ছাড়া গ্রেফতার না করার নির্দেশনাও দেন সিইসি। বিনা ওয়ারেন্টে কাউকে গ্রেফতার করবেন না। মামলা করবেন না। কাউকে হয়রানিমূলক মামলা বা গ্রেফতার করা যাবে না। আশা করি আপনারা এটা করছেনও না।

সিইসি জানান, আইনশৃঙ্খলার বিভিন্ন পর্যায়ের তথ্য একমাত্র পুলিশেরই আছে। তাই বিভিন্ন বাহিনী পুলিশের কাছ থেকেই পরামর্শ নেবে। পুলিশকে এখনই কৌশলগত পরিকল্পনা তৈরি করতে হবে বলেও জানান সিইসি।

সভায় উপস্থিত ছিলেন চার নির্বাচন কমিশনার, ইসি সচিব, জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব, আইজিপি, জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক, ডিএমপি কমিশনারসহ পুলিশ সুপার পর্যন্ত পদমর্যাদার কর্মকর্তারা।