“সড়ক দুর্ঘটনায় শিক্ষকের মৃত্যুঃ দোষীদের শাস্তির দাবিতে বশেমুরবিপ্রবি মানববন্ধন”

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি: সড়ক দুর্ঘটনায় গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কাজী মশিউর রহমানের মৃত্যুতে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার ও শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন সংলগ্ন সড়কে সকাল সাড়ে ১১টায় শিক্ষক সমিতির ব্যানারে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এই সময়ে প্রয়াত সহকারী অধ্যাপক মশিউর রহমানের স্মৃতিচারণ করে উপাচার্য ডক্টর এ কিউ এম মাহবুব বলেন, তিনি একজন প্রজ্ঞাবান ব্যক্তি ছিলেন। তিনি অল্প সময়ের শিক্ষকতা জীবনে তার মেধা দিয়ে ক্লাসরুমের বাইরেও সকলের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন। আমি আমার যে সুযোগ্য সহকর্মীকে হারিয়েছি তা অপূরণীয়।

এসময় তিনি এ ধরনের দুর্ঘটনার জন্য সড়কে পরিবহন গুলোর বিশৃংখল ভাবে চলাচলকেই দায়ী করেন। একইসাথে তিনি আরও বলেন, আমরা জানি ঘাতক বাসটিকে আটক করা হলেও বাস চালককে আটক করা হয়নি। এ ব্যাপারে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর দৃষ্টিআকর্ষণ করে বলতে চাই, একটু সচেষ্ট হলেই ঘাতক বাস চালককে আটক করা সম্ভব।

মানববন্ধনে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি ডক্টর মোঃ কামরুজ্জামান বলেন, এই মানববন্ধন থেকে আমরা প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলব, আমরা যেরকম আমাদের সহকর্মী সদাহাস্যময়ী কাজী মশিউর রহমানকে হারিয়েছি আর কেউ যেন তার সহকর্মী অথবা কোনো সন্তান যেন তার পিতাকে না হারায়।

তিনি বলেন, বাসচালককে গ্রেফতার করে তদন্তের মাধ্যমে তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। মানববন্ধনে উপস্থিত সকল শিক্ষক সহকর্মীকে এবং উপস্থিত সাংবাদিকদের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। নিহত মশিউর রহমানের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি এবং শোকসন্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।

উল্লেখ্য, গত ১৩ অক্টোবর কাজী মশিউর রহমান রাজীব নিজ বাড়ি থেকে ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্যে রওনা দিলে পথিমধ্যে নাজিরপুর নামক স্থানে ইমাদ পরিবহন ইজিবাইককে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলে মশিউর রহমান নিহত হন।