স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি জঙ্গিবাদের স্রষ্টা : বাদশা

82

রাজশাহী অফিস : বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা বলেছেন, ‘যারা স্বাধীনতাকে গ্রহণ করে না তারাই জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করেছে। স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি জঙ্গিবাদের স্রষ্টা। আর জঙ্গি কারা জনগণ তা ভালো করেই জানে। তাই জঙ্গিবাদ নির্মুল করতে হলে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে শক্তিশালী করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই দেশের জঙ্গিবাদ নির্মুল সম্ভব।’

শুক্রবার বিকেলে রাজশাহী কলেজ মিলনায়তনে ১৪ দল আয়োজিত ‘রুখো জঙ্গিবাদ, বাঁচাও দেশ’ শ্লোগানকে সামনে রেখে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ কমিটি গঠন ও মতবিনিময় সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন ।

বাদশা বলেন, পশ্চিমাদের জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা নেই। কারণ জঙ্গিবাদের স্রষ্টা তারা নিজেরাই। ধর্মের সঙ্গেও জঙ্গিবাদের কোনো সম্পর্ক নেই। ধর্ম কোনোভাবেই জঙ্গিবাদকে সমর্থন করে না। ধর্মের নামে যারা জঙ্গিবাদ ছড়াচ্ছে তাদের আইনের আওতায় এনে বিচার করা হবে।
১৪ দলের রাজশাহীর সমন্বয়ক ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সভাপতিত্বে ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতির বক্তব্য তিনি বলেন, ‘সমাজের সাহসী ব্যক্তিদের নিয়েই জঙ্গি প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা হচ্ছে। যে যে দলেরই হোক না কেন, দেশকে ভালোবাসেন, এমন ব্যক্তিদের নিয়েই কমিটি গঠন করা হচ্ছে। কারণ, জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ করতে চাই জনপ্রতিরোধ। শুধু সরকারের পক্ষে আইন প্রয়োগ করে জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ করা কঠিন।’

সভায় অন্যান্যর মধ্যে ভাষাসৈনিক আবুল হোসেন, মোশারফ হোসেন আখুঞ্জি, ওয়ার্কার্স পার্টির রাজশাহী মহানগর সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু, সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, জাসদের নগর সভাপতি প্রদীপ মৃধা, সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ হিল মাসুদ শিবলী, ন্যাপ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান খান আলম, সাম্যবাদী দলের নগর সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভা পরিচালনা করেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার।

সভা শেষে জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ কমিটি ঘোষণা করা হয়। রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনকে এ কমিটির আহ্বায়ক করা হয়। ৮০টি রাজনৈতিক, সামাজিক, পেশাজীবী, ছাত্র-শিক্ষক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে নিয়ে এই কমিটি গঠিত হয়।