ইনুকে গ্রাম ছাড়া করার ঘোষনা

60

কুষ্টিয়া সংবাদদাতাঃ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতারা জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুকে গ্রামছাড়া করার ঘোষণা দিলেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতারা। বুধবার রাতে প্রকাশ্যে এক প্রতিবাদ সভা থেকে তার নিজ সংসদীয় আসন মিরপুর-ভেড়ামারা উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা এ ঘোষণা দেন। সেই সঙ্গে সরকারের অতি কাছের প্রভাবশালী এ মন্ত্রীকে অবাঞ্ছিত করা হবে বলেও হুশিয়ারি প্রদান করা হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলা শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এক প্রতিবাদ সভা থেকে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা এ ঘোষণা দেন। প্রকাশ্যে প্রতিবাদ সভা করে ইনুকে গ্রামছাড়া এবং অবাঞ্ছিত করার ঘটনা নিয়ে কুষ্টিয়ায় জাসদ নেতাদের মধ্যে চরম প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।
সোমবার রাতে ভেড়ামারা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামে স্থানীয় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের সঙ্গে জাসদের কর্মীদের সংঘর্ষ হয়। ওই ঘটনায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের স্থানীয় কার্যালয় ভাঙচুর করার অভিযোগে জাসদের ২৫ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা হয়। অভিযোগ উঠেছে, এ সময় কার্যালয়ে থাকা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবিও ভাঙচুর করা হয়।
এ ঘটনার প্রতিবাদে ভেড়ামারা উপজেলা আওয়ামী লীগ এ প্রতিবাদ সভা করে। চলে রাত ৮টা পর্যন্ত। মঞ্চের ব্যানারে লেখা ছিল জাসদের সন্ত্রাসী কর্তৃক যুবলীগ অফিস, বঙ্গবন্ধু ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুরের প্রতিবাদে ভেড়ামারা উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এক বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ। ১৪ দলের শরিক জাসদের বিরুদ্ধে আয়োজিত এ সমাবেশে দুই উপজেলার পাঁচ সহস্রাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত হন। বক্তব্য দিতে গিয়ে মোকারিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুস সামাদ বলেন, রাজাকার পরিবারের সন্তান ইনুকে এলাকা ছাড়া করা হবে। এ ইউনিয়নেই ইনুর গ্রামের বাড়ি।
ভেড়ামারা উপজেলা আওয়ামী লীগের অর্থবিষয়ক সম্পাদক শরিফুজ্জামান বলেন, ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হলে ইনুকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হবে। মিরপুর উপজেলার বহলবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আসামিদের গ্রেফতার করা না হলে সড়ক-মহাসড়ক অবরোধ করা হবে। ভেড়ামার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী আক্তারুজ্জামান মিঠুর সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হালিম, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম এমপির ভাই কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান, মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামারুল আরেফিন ও পৌর মেয়র শামিমুল ইসলামসহ স্থানীয় বিভিন্ন ইউনিয়নের আওয়ামী ও যুবলীগের শীর্ষ নেতারা বক্তব্য রাখেন।
তবে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এ প্রতিবাদ সভায় আমন্ত্রণ জানানো হলেও কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের কোনো নেতা সেখানে উপস্থিত হননি। এদিকে ভেড়ামারা উপজেলা জাসদের সভাপতি এসএম আনসার আলী বলেন, একটি মহল জাসদের সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর ইমেজকে ক্ষতি করার মিশনে নেমেছে। এ চক্রান্ত কোনাভাবেই সফল হবে না।