সোনিয়া-রাহুল মিছিল থেকে আটক, পরে মুক্তি

28

যুগবার্তা ডেস্কঃ গণতন্ত্র বাঁচাও’ আন্দোলনের নামে ভারতের সংসদ ভবন ঘেরাও কর্মসূচি চলাকালে দেশটির বিরোধী দল কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী, সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ ও সহসভাপতি রাহুল গান্ধীকে আটক করে পুলিশ। শুক্রবার সকালে রাজধানী দিল্লির যন্তরমন্তরে পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে এগোনোর চেষ্টা করলে তখন তাদের আটক করা হয়।
কিছুক্ষণের মধ্যে তাঁদের অবশ্য ছেড়ে দেওয়াও হয়। গ্রেফতারির প্রতিবাদে পার্লামেন্ট স্ট্রিট পুলিশ স্টেশনের বাইরে বিক্ষোভ দেখান কংগ্রেস কর্মীরা, পুলিশের ব্যারিকেড টপকানোর চেষ্টাও করেন। যন্তর মন্তর থেকে কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব তো বটেই, লোকসভা ও রাজ্যসভা সাংসদরাও যোগ দেন এই গণতন্ত্র বাঁচাও’ মিছিলে। তাঁদের অভিযোগ, সিবি আই ও ইডি-কে ব্যবহার করে বিরোধীদের চাপে রাখার চেষ্টা করছে এনডিএ সরকার, উত্তরাখ- ও অরুণাচল প্রদেশের মোদির প্রতিশ্রুতিমত আচ্ছে দিন নিয়ে আসার বদলে নরেন্দ্র মোদি সরকার দেশের গণতন্ত্র ধ্বংসের চেষ্টা করছে। সনিয়া অভিযোগ করেন, উত্তরাখন্ডের দাবানল এমন ভয়াবহ চেহারা নিতে পারল সেখানে সরকার নেই বলে। গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নির্বাচিত রাজ্য সরকারগুলিকে টেনে নামিয়ে দেশের গণতন্ত্রকে শেষ করে দিতে চাইছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। কিন্তু এই চেষ্টা সফল হতে তাঁরা দেবেন না। এই মিছিলের পাল্টা অবশ্য বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বিজেপিও। সংসদ চত্বরেই বিজেপি সাংসদরা অগুস্তা কেলেঙ্কারি ও কেরল ধর্ষণ কান্ডের প্রতিবাদে অবস্থান বিক্ষোভ করেছেন।