সুষ্ঠুভাবে হজ্জ যাত্রী পরিবহনে আন্ত: মন্ত্রণালয় সভা অনুষ্ঠিত

যুগবার্তা ডেস্কঃ ২০১৬ সালের হজ্জযাত্রী পরিবহন কার্ডক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্নের লক্ষ্যে আজ সকালে সচিবালয়ে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি’র সভাপতিত্বে এক আন্ত: মন্ত্রণালয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে এক প্রেস বিফ্রিংয়ে মন্ত্রী জানান, হজ্জ যাত্রীদের গ্রুপ নির্ধারণের লক্ষে (প্রতি গ্রুপে ৫০ জন) আগামী ৪-৫ দিনের মধ্যে মোয়াল্লেম, এজেন্সী ভিত্তিক হজ্জযাত্রীর সংখ্যা ও বাড়ির ঠিকানা সম্বলিত তালিকা হজ্জ এজন্সীজ এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) ধর্ম মন্ত্রণালয়ে দাখিল করবে। ধর্ম মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য এ তালিকা বিমান এবং সৌদিয়াকে প্রেরণ করবে এবং এ তালিকানুসারে টিকিট বিক্রি করা হবে।
কোন তারিখে কোন এজেন্সীকে কতজন হজ্জযাত্রীর টিকেট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে এবং প্রতিদিনের আপডেট বিমান ও সৌদিয়া তা আবশ্যিকভাবে বিজনেস অটোমেশনকে অবহিত করবে।
বিমান হজ্জযাত্রী পরিবহনের জন্য অতিরিক্ত স্লট বরাদ্দের জন্য সৌদি কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন করবে।
বিমান কম যাত্রীর ফ্লাইটগুলো আগামিতে বেশি যাত্রী ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন বিমান ব্যবহার করবে।
ধর্ম মন্ত্রণালয় ৎবঢ়ষধপবসবহঃ এর বিষয়টি সহজীকরণ করবে।
সভায় বিমানের এমডি এ এম মোাসাদ্দিক আহমেদ জানান, ১৬ আগস্ট পর্যন্ত বিমানের ৪৭টি হজ্জ ফ্লাইটের মধ্যে ৯টি ফ্লাইট যাত্রীর অভাবে বাতিল হয়েছে এবং এ কারণে ৪৬৪৫টি ক্যপাসিটি লস হয়েছে। বিষয়টি উদ্বেগজনক। এ কারণে হজ্জযাত্রী পরিবহনে সংকটের সৃষ্টি হতে পারে। আর আযতে কোন ক্যাপাসিটি লস না হয় সে ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণে তিনি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করেন।
সভায় জানানো হয় এ পর্যন্ত ৬৯৪৫১ জন হজযাত্রীর ভিসা হয়েছে এবং গতকাল পর্যন্ত ১২৫টি ফ্লাইটে ৪১৮৪০ জন যাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। এ বছর বাংলাদেশ থেকে ১০১৭৫৮ জন হজ্জ সম্পন্ন করতে পারবেন।
সভায় ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব এসএম গোলাম ফারুক, ধর্ম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুন, ধর্মসচিব আবদুল জলিল, সিভিল এভিয়েশনের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এহসানুল গনি চৌধুরী, বিমানের এমডি এ এম মোাসাদ্দিক আহমেদসহ বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়, ধর্ম মন্ত্রণালয়, হাব, আটাব ও সৌদিয়ার প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।