সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের মৃত্যুতে কানাডার শহরে শহরে শোকের ছায়া

সদেরা সুজন, কানাডা যুগবার্তা সংবাদদাতা, কানাডা: প্রবীন রাজনীতিবিদ, আওয়ামীলীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য, বিজ্ঞ পার্লামেন্টারিয়ান, ৭১এর মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, সামরিক স্বৈরাচার বিরোধী সকল গনতান্ত্রিক আন্দোলনের অন্যতম নেতা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের মেধাবী ছাত্র, বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট বারের সদস্য, বাংলাদেশের অন্যতম সংবিধান প্রণেতা, বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের অধিকারী, সাবেক মন্ত্রী, ভাটিবাংলার সিংহ পুরুষ বলে খ্যাত জননন্দিত জননেতা বাবু সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত এম.পি-এর মৃত্যু সংবাদ কানাডায় পৌঁছার সঙ্গে সঙ্গে শোকের ছায়া নেমে আসে।

গত শুক্রবার জননেতা সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত অসুস্থ হয়ে পড়লে এবং তাকে ল্যাবএইডে ভর্তি করা অবস্থার অবনতি হলে শনিবার রাত ৮টার দিকে তাকে নেওয়া হয় হাসপাতালের সিসিইউতে; পরে লাইফ সাপোর্টে রাখার খবর কানাডায় পৌঁছলে প্রবাসীরা উদ্ভিগ্ন উৎকন্ঠা নিয়ে তাঁর আশু রোগমুক্তি কামনা করে কানাডার বিভিন্ন শহরের মন্দিরে প্রার্থণা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ফেসবুক ট্যুইটারসহ সোশ্যাল মিডিয়ায়ও রোগমুক্তি কামনা করে স্টেটাস দেওয়া হয়। কিন্তু দেশ-বিদেশে কোটি কোটি মানুষকে কাঁদিয়ে সবার প্রার্থণা উপেক্ষা করে বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ও সংসদ সদস্য শ্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত অবশেষে না ফেরার দেশে চলে যাবার সংবাদ গতকাল শনিবার কানাডা সময় বিকাল ৫টায় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ হলে প্রবাসীদের মধ্যে বিষাদ-বেদনা আর গভীর শোকের ছায়া নেমে আসে। চোখের পলকে ফেসবুকসহ সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর ছবিসহ শোক বাণী, শ্রদ্ধা, স্মৃতিচারণ, পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশিত হয়। গতকাল এবং আজ কানাডার বিভিন্ন শহরের মন্দিরে মন্দিরে তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা নিবেদন করে এবং তাঁর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে প্রার্থনা সভা গীতা পাঠ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কানাডা প্রবাসীদের বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন, ব্যক্তিবর্গ ও প্রতিষ্ঠান পৃথক পৃথকভাবে গভীর শোক ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেছেন এবং শোক সভার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কানাডা শাখার সভাপতি গোলাম মোহাম্মদ মাহমুদ মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান প্রিন্স বর্ষীয়ান পার্লামেন্টারিয়ান, বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের অধিকারী, ভাটি-বাংলার সিংহ পুরুষ, সিলেট বিভাগের অহংকার বাবু শ্রী সুরন্জিত সেন গুপ্ত (এম.পি’র) মৃত্যুতে গভীর শোক ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বাংলাদেশ হারালো আরও একজন রাজনৈতিক অভিভাবক যা সহজে পূরণ হবার নয় এমন মন্তব্য করে আঁর আত্মার শান্তি কামনা করেছেন।

উল্লেখ্য কানাডা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোহাম্মদ মাহমুদ মিয়া সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান প্রিন্স, অন্টারীও আওয়ামী লীগ নেতা সুদীপ সোম রিংকু, কানাডা আওয়ামী লীগ নেতা ইয়াহহিয়া আহমেদসহ কানাডা আওয়ামী লীগের বেশ ক’জন নেতাকর্মী ঢাকায় রোববার বিকালে জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় প্রয়াত সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ।

প্রবীণ রাজনীতিবীদ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য, আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি জননেতা সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন কানাডা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সরওয়ার হোসেন।

বাংলাদেশ মাইনোরেটি রাইটস এলায়েন্স টরন্টোর সভাপতি মানবাধিকার নেতা অরুন দত্ত সম্পাদক সজল চৌধুরী, এক বিবৃতিতে বাংলাদেশের অহঙ্কার, বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ, স্বাধীন দেশের প্রথম সংসদ সদস্যসহ ৭ বার জাতীয় সংসদ সদস্য বিজ্ঞ পার্লামেন্টারীয়ান, অসাম্প্রদয়িক চেতনায় বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্নদ্রষ্টা বাবু সুরঞ্জিত সনগুপ্ত-এর মৃত্যুতে গভীর শোক ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে তাঁর আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। এছাড়াও মন্ট্রিয়লস্থ বাংলাদেশ সনাতন ধর্ম টেম্পল, বাংলাদেশ হিন্দু মন্দির, বাংলাদেশ হিন্দু এসোসিয়েশন অব ক্যুইবেক, বেদান্ত সোসাইটি অব মন্ট্রিয়ল, বাবা লোকনাথ নিবেদিত সংঘ, টরন্টো দুর্গা বাড়ী, টরন্টো কালচারাল মন্দির, টরন্টো হিন্দু ধর্ম আশ্রমসহ বিভিন্ন প্রভিন্সের মন্দির ও সংগঠন শোক ও প্রার্থণা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব অব মন্ট্রিয়লের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কমিউনিটি নেতা দীপক ধর অপু, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি জয়দত্ত বড়ুয়া, সুনীল গোমেজ, প্রদীপ সরকার, সরোজ দাশ, ফনিন্দ্র কুমার ভট্টাচার্য, শ্যামল দত্ত, অমলেন্দু ধর, দীপক ধর , বিদ্যুৎ ভৌমিক, দিলীপ কর্মকার, বরুণ বনিক, নয়ন রায়, কৃপেশ পাল, অলক চৌধুরী, কৃষ্ণপদ সেন, অলক চৌধুরী, স্বপন চক্রবর্তী ও আশীষ বড়ুয়া এক বিবৃতিতে উপমহাদেশের বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ, জননেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের মৃত্যুতে গভীর শোক ও বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে তাঁর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। নেতৃবৃন্দ এক শোক বিবৃতিতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্বের প্রশ্নে আপোষহীন এই সংগ্রামী নেতার মৃত্যুতে দেশের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা প্রগতিশীলধারা ও সংসদীয় রাজনীতির ক্ষেত্রে এক বিরাট শূন্যতা অপূরনীয় ক্ষতির সৃষ্টি হলো তা সহজে পূরণ হবার নয়।