সুন্দরবনের প্রজনন কেন্দ্রে কুমির জুলিয়েট ৪৩টি ডিম দিয়েছে

204

মোংলা থেকে মোঃ নূর আলমঃ পূর্ব সুন্দরবনের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের কুমির জুলিয়েট ৯ মে মঙ্গলবার সকালে ৪৩টি ডিম দিয়েছে। প্রজনন কেন্দ্রের পুকুর পাড় থেকে ডিমগুলো সংগ্রহ করে তা ইনকিউবেটরে (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) রাখা হয়েছে।
করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আজাদ কবির জানান, কেন্দ্রের পুকুর পাড়ে মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে ৪৩টি ডিম দেয় জুলিয়েট। পরে ডিমগুলো পুকুর পাড় থেকে তুলে কেন্দ্রের প্রজনন কাজে ব্যবহৃত ইনকিউবেটরে রাখা হয়েছে। ওসি আজাদ কবির আরো জানান ৪৩ টি ডিমের মধ্যে ৩ টি ডিম অপরিপক্ক। তাই এ তিনটি ডিম নষ্ট হওয়ার আশংকা রয়েছে। ইনকিউবেটরে নির্দিষ্ট আলো, বাতাস ও তাপমাত্রায় রাখা ডিমগুলো ৮৮ থেকে ৯০ দিনের মধ্যে বাচ্চা ফুটে বের হবে। এ নিয়ে জুলিয়েট করমজলে ১১ বার ডিম দিয়েছে। উল্লেখ্য, বিলুপ্ত প্রায় লবণ পানির প্রজাতির কুমিরের প্রজনন, বংশ বিস্তার ও সংরক্ষণের লক্ষ্যে বন বিভাগের উদ্যোগে ২০০২ সালে পূর্ব সুন্দরবনের চাদপাই রেঞ্জের করমজলের বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ৮ একর জায়গা জুড়ে প্রায় ৩২ লাখ টাকা ব্যয়ে কুমির প্রজনন কেন্দ্র গড়ে তোলা হয়।