সিংড়ায় ৪ লাখ টাকা দামের একজোড়া মহিষ ছিনতাই

3

মো: এমরান আলী রানা (নাটোর) সিংড়া: নাটোরের সিংড়ায় ৪ লাখ টাকা দামের একজোড়া মহিষ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। রবিবার ভোর রাতে উপজেলার ডাহিয়া ইউনিয়নের বিয়াশ চার মাথার গাড়া বাড়ি ব্রীজে এই ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগীমহিষ মালিক বিয়াশ চকপাড়া গ্রামের রসুল ফকির। স্থানীয় ও ভুক্তভোগী পরিবার সুত্রে জানা যায়, বিয়াশ চকপাড়া গ্রামের রসুল,গাড়া বাড়ি গ্রামের বাচ্চু,ঠেঙ্গাপাকুড়ীয়া গ্রামের ছালাম ও সরিষা বাড়ি গ্রামের আব্দুল আলীম সহ এই চারজন এলাকায় যৌথভাবে মহিষ গাড়ীর ভাড়া বহন করে আসছিলেন। ঘটনার দিন ভোর ৪টায় গাড়া বাড়ি গ্রামের হযরত নামে এক কৃষকের ভুট্রার জমির ভাড়া বহন করার কথা ছিল তাদের। অন্য ৩ গাড়িয়াল ঠিক সময়েই হযরতের ওই ভুট্রার জমিতে পৌছেন। রসুল তার মহিষ গাড়ী নিয়ে ভোর ৪টায় বিয়াশ চার মাথার গাড়া বাড়ি ব্রীজে যেতেই ৪/৫ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল তার গাড়ী আটকায় এবং রসুলকে গামছা ও লুঙ্গির সাথে বেধে মারপিট শুরু করে। একপর্যায়ে আহত অবস্থায় তাকে ফেলে দুটি মহিষ ছিনতাই করে নিয়ে যান ওই র্দূবৃত্তের দল। পরে স্থানীয়রা খবর পেয়ে রসুলকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌছে দেন। ভুক্তভোগী রসুল বলেন, আমি আশা ব্যাংক ও ঘরোয়া ভাবে মোট ৪ টাকা ঋণ নিয়ে গত দুই মাস আগে এই দুটি মহিষ কিনে ছিলাম। ইরি ধান ও ভুট্রা কাটার মৌসুমে প্রতিদিন এই এই গাড়ী দিয়ে ৫ থেকে ৬ হাজার টাকা ভাড়া পাচ্ছিলাম। তাই দিয়ে সংসার খরচ চালিয়ে ধীরে ধীরে ঋণের টাকাও পরিশোধ করতে ছিলাম। এখন আমার যে সর্বনাশ হলো তাতে আমি ঋণ কিভাবে পরিশোধ করবো আর সংসার কি ভাবে চালাবো।
সিংড়া থানার অফিসার ইনর্চাজ নুর-এ আলম সিদ্দিকী বলেন, এখন পর্যন্তকোন অভিযোগ পাই নাই। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।