সিংড়ার সাবেক ইউপি সদস্য আলাল এখন অটোগাড়ীর চালক

এম এএইচ নাহিদঃ সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করলে যে সম্পদের পাহাড় গড়া যায়না ইউপি সদস্য আলাল তার উজ্জল দৃষ্টান্ত। এই ইউপি সদস্য হয়ে টিআর,কাবিখা,দুস্থভাতা,বিধবা-বয়স্ক ভাতা থেকে গরিব মানুষের রক্ত চুষে অনেক ইউপি সদস্য অনেক সম্পদের মালিক হয়েছে।বাড়ি গাড়ী করেছে।কিন্তু আলাল তা করে নাই।তাই আজ তাকে সংসার চালাতে অটোগাড়ী চালাতে হচ্ছে।

নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলার মহিষমারী গ্রামের আলাল হোসেন ৫ নং চামারী ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইউপি সদস্য ছিলেন।গত নির্বাচনে তিনি পরাজিত হন।জানাগেছে আলাল ক্ষমতায় থাকা কালীন ঐ ওয়ার্ডের অনেক উন্ননোয়ন মূলক কাজ করেছেন, গরিব অসহায় মানুষের সেবা করেছেন।কিন্তু বিনিময়ে কারো কাজ থেকে টাকা নিয়েছেন কিম্বা সরকারী অনুদান আত্মসাৎ করেছেন এমন প্রমাণ কেউ দিতে পারবে না। সততার কারণে আজ তাকে অটোগাড়ী চালিয়ে সংসার চালাতে হচ্ছে।এ বিষয়ে আলালের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন এতে আমার কোন দুঃখ নাই,সততার সাথে মানুষের সেবা করতে পেরেছি এতেই আমি খুশি।অটোগাড়ী চালাতে আমি গর্ববোধ করি।সৎ হওয়ার পরেও আপনাকে মানুষ ভোট দিলনা এবিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন মানুষ বুঝতে পারে নাই।ভবিষ্যতে বুঝলে মানুষ আবার ভোট দিবে।আমি জনগণের ওপর থেকে আস্তা হারাতে চাই না।