সাতক্ষীরায় ফুটবল কন্যা সাবিনা ও তার মাতাকে সংবর্ধনা

প্রতাপ হোড়,সাতক্ষীরা : সাফ মহিলা চ্যাম্পিয়নশীপ-২০২২ এ বাংলাদেশ মহিলা ফুটবল দলের গৌরবময় অর্জনে অধিনায়ক সাবিনা খাতুন ও তার মা মমতাজ বেগমকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। শনিবার দুপুর ১২টায় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ও দুপুর দুটোয় সাতক্ষীরা পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে পৃথক সংবর্ধনা দেওয়া হয়।
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীরের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা সদর আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহম্মেদ রবি। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট রাশেদ রেজা, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় বিভাগের সাতক্ষীরার সহকারি পরিচালক মাসরুবা দিলরুবা, সাতক্ষীরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সজীব খান, আন্তজার্তিক রেফারী তৈয়ব হাসান বাবু, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহসভাপতি আশরাফুজ্জামান আশু, জেলা ফুটবল এ্যসোসিয়েশনের সভাপতি শেখ আবু নাসের, সাধারণ সম্পাদক আরিফুল হক প্রিন্স, সাবিনা ও মাছুরার কোচ প্রয়াত আকবর হোসেন স্ত্রী রেহেনা আক্তার প্রমুখ। এ সময় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাবিনা ও তার মাকে ফুলের তোড়া দিয়ে বরন করার পর বিশেষ উপহার দেওয়া হয়। ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয় সাবিনার হাতে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এক লাখ টাকা ও সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহম্মেদ রবি’র পক্ষ থেকে তিন লাখ টাকার উপহার সামগ্রী তুলে দেওয়া হয় সাবিনার হাতে।
অনুষ্ঠানে সাবিনা খাতুন অভাব অনটন প্রতিবন্ধকতার মধ্য দিয়ে যেভাবে নিজেকে জাতীয় স্তরের নারী ফুটবলে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছেন সে সম্পর্কে নাতিদীর্ঘ বক্তব্য দেন। এ ছাড়া অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ভারতকে হারোনের অভিজ্ঞতার কথাু তুলে ধরেন। তিনি তার ফুটবল জগতে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পিছনে কোচ প্রয়াত আকবর আলী , বড় বোন সালমা, বাবা ও মায়ের অবদান অনস্বীকার্য বলে উল্লেখ করেন। একইসাথে কোচ আকবর আলীর প্রতিষ্ঠিত জ্যেতি ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি যাতে মাথা উচু করে দাড়িয়ে থাকতে পারে সেজন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। সাবিনা জেলা প্রশাসকের কাছে নারীদের ফুটবল খেলার জন্য একটি মাঠ, তার নিজের বাড়িতে ঢোকার জন্য রাস্তাটি সংস্কার ও নিজের বোনের চাকুরির দাবি করেন।
মমতাজ বেগম বলেন, তার মেয়ে সাবিনা যেভাবে প্রতিকুল পরিস্থিতির মধ্যে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে তেমনটি যাতে অন্য কোন নারী ফুটবলারের ভাগ্যে না জোটে তার জন্য সকলের সুদৃষ্টি কামনা করেন।
সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহম্মেদ রবি বলেন, সাবিনা ও মাছুরা শুধু সাতক্ষীরার নয় সারা বাংলাদেশকে বিশ্বের ইতিহাসে নতুন জায়গায় দাড় করিয়েছে। তিনি সাতক্ষীরার নারী ফুটবলারদের জন্য সবধরণের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীর বলেন, সাবিনা সাতক্ষীরাকে সংবর্ধিত করেছে। মাছুরা সাতক্ষীরায় এলে দুজনকেই সাতক্ষীরা স্টেডিয়ামে বড় আকারে সংবর্ধনা দেওয়া হবে।
এদিকে শনিবার দুপুর দুটোয় জেলা পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার কাজী মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে সাবিান ও তার মাকে ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়। সাবিনাকে ক্রেস্ট এর পাশাপাশি নগদ ৫০ হাজার টাকা পুরষ্কার দেওয়া হয়।