সরকার হেফাজতের অন্যায় দাবির কাছে মাথা নত করে শহীদদের সাথে অসম্মান করছেন-সিপিবি

56

যুগবার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র ঢাকা কমিটির উদ্যোগে শুক্রবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেছেন দেশ পরিচালনায় ব্যর্থ হয়ে সরকার আগামী নির্বাচনে ফায়দা লুটার আশায় অন্ধকারের শক্তি হেফাজত ইসলামের অন্যায় দাবি মেনে নিচ্ছে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী, নারী বিদ্বেষী হেফাজতের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জাবান। হাইকোর্টের সামনে থেকে ভাস্কর্য অপসারণের নিন্দা জানিয়ে বক্তারা অবিলম্বে ন্যায়ের প্রতীক ভাস্কর্য স্ব-স্ব জায়গায় পুন:স্থাপনের দাবি জানান। নেতৃবৃন্দ ভাস্কর্য অপসারণের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে গ্রেফতারকৃত ছাত্রনেতা লিটন নন্দী, মোর্শেদ হালিমসহ ছাত্রনেতাদের মুক্তির দাবি করেন।
চালসহ নিত্যপণ্যর উর্ধ্বগতি রোধ, যানজট-জলাবদ্ধতা, গ্যাস-বিদ্যুৎ-পানি সংকটের সমাধান, মশার উপদ্রব বন্ধ, হকার উচ্ছেদ বন্ধের দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সরকারের ব্যর্থতার কারণে চালের দাম আজ সাধারণ মানুষের ক্রয়সীমার বাইরে চলে গেছে। যানজট, গ্যাস-বিদ্যুৎ-পানির সংকটে নগরবাসী আজ চরম দুর্দশায় পড়েছে। সীমাহীন লোডশের্ডি-এর ফলে দেশবাসীর স্বাভাবিক জীবন আজ স্তব্ধ হয়ে গেছে। অথচ সরকার বিদ্যুৎ উৎপাদনের কথা বলে জনগণের পকেট থেকে কোটি কোটি টাকা নিয়ে লুটপাট করেছে। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ নগরবাসীকে এসব অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখ দাঁড়ানোর আহ্বান জানান। জনগণের সংকট সমাধানের দাবিতে আগামী ১০দিন ঢাকা শহরের পাড়া মহল্লায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হবে বলে সমাবেশ থেকে ঘোষণা করা হয়।
সিপিবি ঢাকা কমিটির সভাপতি মোসলেহ উদ্দিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য আহসান হাবিব লাবলু, ঢাকা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ডা. সাজেদুল হক রুবেল, সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য সাজেকুর রহমান শামীম, সদস্য শংকর আচার্য, মুর্শিকুল ইসলাম শিমুল, মানবেন্দ্র দেব এবং কে.এম. মিন্টু। সমাবেশ পরিচালনা করেন ঢাকা কমিটির সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য অ্যাড. মাকসুদা আক্তার লাইলী। সমাবেশ শেষে হাইকোর্টের সামনে থেকে ভাস্কর্য অপসারণের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে।