সরকার খালেদা জিয়ার চিকিৎসা অধিকার কেড়ে নিয়েছে–লেবার পার্টি

ডেস্ক রিপোর্ট: সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসা নিয়ে শেখ হাসিনার অপরাজনীতির ঘটনা অমানবিক ও হৃদয়বিদয়ক মর্মান্তিক ঘটনা মন্তব্য করে বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরান ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব লায়ন ফারুক রহমান বলেছেন, সরকার খালেদা জিয়ার চিকিৎসার অধিকার কেড়ে নিয়েছে। আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা রাজনৈতিক ভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে প্রতিহিংসার রাজনীতি চরিতার্থ করতে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন মামলায় সাজা দিয়ে দীর্ঘদিন কারাভ্যান্তরে যথাযথ চিকিৎসা না হওয়ায় তিনি আজ জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে। তাকে তিলে তিলে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। বেগম খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসা পাওয়া কোন অমুলক দাবী নয়, এটা তার অধিকার। চিকিৎসক টিম বার বার বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্য সুপারিশ করলেও সরকার খামখেয়ালী ভাবে আইনের অপব্যাখ্যা দিয়ে রেখেছে। বেগম জিয়ার পরিবার, বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের পক্ষ থেকে বার বার দাবী জানালেও সরকার কর্নপাত করছে না। এহেন পরিস্থিতে আল্লাহ না করুন, বিনা চিকিৎসায় বেগম খালেদা জিয়ার মৃত্যু হলে শেখ হাসিনা দায়ী থাকবেন।

আজ (বুধবার) লেবার পার্টির প্রচার সম্পাদক মনির হোসেন সাক্ষরিত এক যৌথ বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় ব‌লেন, আমরা আশংকা কর‌ছি বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেয়ার ক্ষেত্রে যেকোনো ধরনের বিলম্ব ও অজুহাত বড় বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে। যা কা‌রো জন্য ভালো বার্তা বহন করবে না। আশা ক‌রি সরকার সত্যিকারের দায়ত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে সাবেক তিনবা‌রের নির্বা‌চিত প্রধানমন্ত্রীর বিদেশে চি‌কিৎসা নেয়ার ব্যবস্থা করবে।