সততাই দূর্ণীতি রুখতে পারে

147

যুগবার্তা ডেস্কঃ ন্যায় সততা, নিজের প্রতি নিজের জবাবদিহিতা এবং দেশপ্রেমে অঙ্গীকারবদ্ধতার প্রতি শ্রদ্ধাশীল হলেই দূর্ণীতি রোধ করে বিশ্বের বুকে একটি উন্নতি বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব বলে মন্তব্য করেন আন্তর্জাতিক দূর্ণীতি বিরোধী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায়।
বুধবার আন্তর্জাতিক দূর্ণীতি বিরোধী দিবস উপলক্ষে ইত্তেফাক মোড় আয়োজিত আলোচনা সভা ও মানববন্ধনে এমন মন্তব্য করেন বক্তারা।

কাজী আরেফ ফাউন্ডেশন ও ওয়ারী জোন দূর্ণীতি প্রতিরোধ কমিটি আয়োজিত উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ঢাকা দক্ষিণ সিটিকরপোরেশ ৩৯ নং ওয়ার্ড কমিশনার মায়নূল হক মঞ্জু বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়তে হলে আমাদের সবাইকে দূর্ণীতি থেকে মুক্ত হতে হবে। দেশের প্রতি শ্রদ্ধা আর জনগনের প্রতি অঙ্গীকারবদ্ধ হয়ে দূর্ণীতির বিরুদ্ধে ঐক্যমত তৈরি করতে হবে।
উক্ত আলোচনা ও মানববন্ধনে প্রধান বক্তা হিসেবে বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট ফোরাম (বোয়াফ) সভাপতি কবীর চৌধুরী তন্ময় বলেন, পাঁচ পাঁচবার দূর্ণীতিতে চ্যাম্পিয়ানের কলঙ্কময় অধ্যায় থেকে জাতির জনক কন্যা শেখ হাসিনা বাঙালী জাতিকে বের করে আনতে সক্ষম হয়েছে। বাংলাদেশ আজ আন্তর্জাতিক ভাবে মর্যাদাশীল দেশ হিসেবে গৌরব অর্জন করে নিন্মমধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। আশাকরি অচিরেই মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে আত্মমর্যাদা নিয়ে এগিয়ে যাবে।
কবীর চৌধুরী তন্ময় আরও বলেন, আমরা যদি নিজ নিজ জায়গায় নিজেদের সততার সাথে পরিচালিত করতে পারি, লোভ-লালসা থেকে নিজেদের মুক্ত রাখতে পারি, নিজের স্বার্থের কথা চিন্তা না করে দেশ ও জনগনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হই তাহলে দূর্ণীতি বাংলাদেশে থাকবে না।
দূর্ণীতি প্রতিরোধ কমিটির ওয়ারী জোনের সভাপতি কাজী মাসুদ আহমেদের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা ও সাবেক কাউন্সির মায়নূল ইসলাম ময়না, কাজী আরেফ স্কুলের প্রধান শিক্ষক ইন্দ্রজিত রাজ বংশী, বঙ্গবন্ধু শিশু কল্যান পরিষদের সভাপতি মুশফিকুর রহমান মিন্টু তরুণ লীগের সাধারন সম্পাদক কাজী সাইদুর রহমান মানিক প্রমুখ।