সংখ্যালঘু বিভাজনে বিশ্বাস করে না বিএনপি: খালেদা জিয়া

32

যুগবার্তা ডেস্কঃ বিএনপি ধর্মীয় সংখ্যাগুরু ও সংখ্যালঘু বিভাজনে বিশ্বাস করে না বলে মন্তব্য করেছেন দলটির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।
শুক্রবার বিকালে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।
‘বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে বাংলাদেশসহ বিশ্বের সকল বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়ে এ বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়।
খালেদা জিয়া বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। পরস্পরের মধ্যে প্রীতি ও শুভেচ্ছাবোধ আমাদের সোনালী ঐতিহ্য। বাংলাদেশে সকল ধর্মের অনুসারীরা পারস্পরিক সৌহার্দ্যরে বন্ধনে আবদ্ধ। আমরা সবাই বাংলাদেশী। বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী দর্শনেই এদেশের সকল বর্ণ, ধর্মীয় সম্প্রদায় ও নৃগোষ্ঠী-সমূহের সম্মিলিত আকাক্সক্ষার স্ফূরণ ঘটে।
বিএনপি ধর্মীয় সম্প্রীতিসহ সকল ধর্মের মর্যাদা রক্ষায় সবসময়ই সচেষ্ট থেকেছে এবং আগামীতেও সে প্রয়াস অব্যাহত থাকবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
বিবৃতিতে বিএনপি চেয়ারপারন বলেন, যুগে যুগে মহামানবেরা পথভ্রষ্ট মানুষকে সত্যের আলো দেখিয়েছেন। চিনিয়েছেন কল্যাণের পথ। সকল প্রতিবন্ধকতা ও প্রতিকূলতার মধ্যেও শুভ্রদীপ্ত সত্য ও ন্যায়ের পথে তিনি মানুষকে আহবান করেছেন। ‘হিংসা দিয়ে হিংসার ধ্বংস নয়’ সে কারনেই শরণ নিতে হয় অ-হিংসার মহামতি বুদ্ধের এ বাণী চিরকালীন। আজও মানব জাতির জন্য সমানভাবে প্রযোজ্য।
তিনি বলেন, জাতিতে জাতিতে ধ্বংসাত্মক প্রতিযোগিতায় মানব জাতি আজ যখন ছিন্নভিন্ন, যখন মানুষ অহংকার, হিংসা আর গ্লানির মিশ্র জীবনযাপন করছে তখন মহামতি গৌতম বুদ্ধের অহিংসা, মানব প্রেম ও শান্তির বাণী বিশ্ববাসীকে দেখাতে পারে মহামিলনের পথ। মহামতি গৌতম বুদ্ধ নিজের জীবন গড়ে তুলেছিলেন কঠোর তপশ্চচর্যা, কৃচ্ছসাধন এবং আনন্দরুপ বিনম্রতায় এক মহৎ জীবনবীক্ষা ও আত্মশক্তি-যা আদর্শ হিসেবে আজও মানবজাতির জন্য মানবিক সমৃদ্ধির এক অনুকরণীয় কর্মযজ্ঞ। বেগম জিয়া বুদ্ধ পূর্ণিমার সকল আনুষ্ঠানিকতার সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।