শাবিপ্রবি আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের অর্থ সংগ্রহের বিকাশ, রকেট, নগদের ৬ অ্যাকাউন্ট বন্ধ

ডেস্ক রিপোর্ট: সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনকারীদের ৬টি অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে গেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ওই অ্যাকাউন্টে খাবার ও আনুষঙ্গিক খরচের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা আর্থিক সহায়তা পাঠাতেন বলে জানিয়েছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। ইস্টার্ন ব্যাংকের একটি অ্যাকাউন্ট, ৩টি বিকাশ অ্যাকাউন্ট, একটি রকেট ও একটি নগদ অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে এই অর্থসহায়তা আসছিল।

শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, শাবিপ্রবির যেকোনো কর্মসূচিতে সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা যৌথ উদ্যোগে তহবিল গঠন করে থাকেন। এ আন্দোলনেও সেভাবেই অর্থ সংগ্রহ চলছিল। তবে সোমবার সন্ধ্যার পর থেকে এসব নম্বরে আর কোনো লেনদেন করা যাচ্ছে না।

রকেট, নগদ, বিকাশ ও ব্যাংক অ্যাকাউন্টসহ মোট ছয়টি অ্যাকাউন্ট থেকে তারা কোনো লেনদেন করতে পারছেন না। এই ফোন নম্বরগুলোতে কল আসছে না এবং যাচ্ছেও না।

আন্দোলনকারীদের মুখপাত্র সাদিয়া আফরিন বলেন, আমাদের আর্থিক লেনদেনের সব অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এগুলো আমাদের আন্দোলন নস্যাৎ করার ষড়যন্ত্র বলে মনে করি। তবে এসব করে আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না।

সিলেটের ডিস্ট্রিবিউটর নাসিম হোসাইন বলেন, অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। তবে বিকাশে লেনদেনের কিছু নিয়ম আছে। ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা ও ব্যবসয়িক অ্যাকাউন্ট থেকে সর্বোচ্চ ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত লেনদেন করা যায়। এর বেশি হলে অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

বিকাশের হেড অফ করপোরেট কমিউনিকেশনস শামসুদ্দিন হায়দার ডালিমও জানান, এ ধরনের কোনো অভিযোগ তিনি পাননি।-আমাদের সময়.কম