লালমোহন-কালাইয়া ফেরী সার্ভিস চালুর সিদ্ধান্ত

ভোলা প্রতিনিধি॥ ভোলার লালমোহনের সঙ্গে সড়ক পথে দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলোকে সংযুক্ত করতে ফেরি সার্ভিস চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিআইডব্লিটিসি। এ লক্ষ্যে ৩ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ঘাট পরিদর্শন করেছেন।
শুক্রবার (১৯ আগস্ট) সকালে প্রতিনিধি দলটি ফেরি রুটের সম্ভাবতা যাচাই শেষে তেঁতুলিয়ার ১৩ কিলোমিটার নৌপথে ফেরি সার্ভিস চালুর চিন্তা করেন তারা। এ জন্য লালমোহনের নাজিপুর টু পটুয়াখালীর কালাইয়া পরিদর্শন করেন।
প্রতিনিধি দলে রয়েছেন বিআইডব্লিটিসির চেয়ারম্যান আহমদ শামীম আল রাজী, পরিচালক (বাণিজ্য) এস এম অশিকুজ্জামান ও ক্যাপ্টেন হাসেমুর রহমান চৌধুরী। এছাড়ারাও ভোলার ম্যানেজার মো. পারভেজ খান, তজুমদ্দিনের ইউএনও মোসা. মরিয়ম বেগমও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
পরে বিআইডব্লিটিসির ম্যানেজার মো. পারভেজ খান বলেন, লালমোহন-কালাইয়া রুটে ফেরি চালু হতে পারে। কারণ এ পথে ফেরি চালু হলে চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, পায়রা বন্দরের সঙ্গে যোগাযোগ সহজ হবে। তাই খুব দ্রুত ফেরি সার্ভিস চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিআইডব্লিটিসি। তবে কালাইয়ার সড়কটি সংস্কার করতে হবে। তাহলে কোনো সমস্যা নেই।
এ সময় বিআইডব্লিটিসির চেয়ারম্যান নদীপথ বাড়ানোর কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এই রুটে ফেরি সার্ভিস চালু করার জন্য দ্রুত সমীক্ষার মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।
তিনি আরও বলেন, দ্রুত সময়ের মধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে এ রুটে ফেরি চলাচল কার্যক্রম শুরু করা হবে।
এদিকে নাজিপুর-কালাইয়া রুটে ফেরি সার্ভিস চালু হলে শুধু দ্বীপজেলা ভোলা নয়, লালমোহন উপজেলার যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতির পাশাপাশি অর্থনৈতিক উন্নতি হবে বলে মনে করছেন এ অঞ্চলের মানুষ।