লংদুতে পাহাড়ী আদীবাসীদের গ্রামে হামলা ও সুলতানা কামালকে হুমকির প্রতিবাদ এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি…..স্ট্যান্ডিং কমিটি

56

যুগবার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোর স্ট্যান্ডিং কমিটি রাঙ্গামাটি জেলার লংদুতে পাহাড়ী আদীবাসীদের গ্রামে হামলা চালিয়ে বাড়ীঘর জ্বালিয়ে দেয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।
সোমবার স্ট্যান্ডিং কমিটির দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়, পাহাড়ে শান্তি ও স্থিতিশীল পরিবেশকে নস্যাৎ করতে একটি গোষ্ঠী সবসময় তৎপর রয়েছে। তারা আদীবাসী পাহাড়ী ও বাঙ্গালীদের মধ্যে বিভেদ তৈরী করে কায়েমী স্বার্থ রক্ষা এবং সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে চায়। দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর যে “পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি” হয়েছিল তা যাতে বাস্তবায়ন না হয় তার জন্য এই গোষ্ঠি তৎপর রয়েছে। বিবৃতিতে তারা পার্বত্য চট্টগ্রামে নিয়োজিত আইন শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সদস্যদের পাহাড়ী জনপদে শান্তি রক্ষা এবং আদীবাসীদের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আরো তৎপর হওয়ার আহ্বান জানায়। বিবৃতিতে অবিলম্বে ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান এবং ক্ষতিগ্রস্তদের পূনর্বাসনের দাবী জানানো হয়।
অপর এক বিবৃতিতে, মুক্তিযোদ্ধা সুলতানা কামালের বিরুদ্ধে হেফাজত নেতাদের ধৃষ্টতপূর্ণ বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলা হয়, বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় এরা ধর্মের দোহাই দিয়ে পাকিস্তানের পক্ষাবলম্বন করেছিল। আজ মুক্তিযুদ্ধের সেই পরাজিত শক্তির আস্ফালন বেড়েছে। স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় সংখ্যাগোরিষ্ঠ মানুষ মুসলমানই ছিল, কিন্তু এদেশের সকল ধর্মের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানী হানাদারদের পরাজিত করে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ রাষ্ট্র কায়েম করেছিল। সেই বাংলাদেশে ধর্মের নামে এই আস্ফালন জনগণ মেনে নেবে না। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, যারা সুলতানা কামালকে হুমকি দিয়েছেন তারা প্রচ্ছন্নভাবে বাংলাদেশের সংবিধান ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে অস্বীকার করছেন। এই দুবৃত্তদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হোক এবং হুমকিদাতাদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার করা হোক।