রামপাল চুক্তি বিরোধী অভিযাত্রা, পুলিশের বাধায় পন্ড

যুগবার্তা ডেস্কঃ বাগেরহাট রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের চুক্তি বাতিলের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির অভিযাত্রায় পুলিশী বাধায় কর্মসূচি পন্ড হয়েছে। ব্যানার কেড়ে নিয়ে অভিযাত্রার মিছিল ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয়েছে। এ নিয়ে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।
বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী শেখ মো. শহিদুল্লাহ ও সদস্য সচিব আনু মুহাম্মদের নেতৃত্বে এই কর্মসূচি শুরু হয়।
জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অভিমুখে যাত্রা করা শান্তিপূর্ণ মিছিলটি শেরাটন মোড় পার হয়ে পরিবাগ এলাকার দিকে যেতেই বিপুল সংখ্যক পুলিশ ব্যারিকেড তৈরি করে। বিক্ষোভকারীরা ব্যারিকেড ভেঙে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের ঘিরে ধরে ধাক্কা দিতে দিতে পিছু হটানোর চেষ্টা করে। এসময় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে পুলিশ ব্যানার কেড়ে নেয় এবং মিছিলকারীদের তাড়া করে। এসময় বিক্ষোভকারীরা পুলিশকে লক্ষ করে ইটপাটকেল ছুঁড়ে। পুলিশও পাল্টা ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয় মিছিলটিকে। এ সময় পুলিশ অন্তত ৭/৮ রাউন্ড গুলি ও টিয়ারশেল ছুঁড়ে।
পুলিশের তাড়া খেয়ে ছত্রভঙ্গ হওয়ার পর আন্দোলনকারীরা ওই এলাকার বিভিন্ন ভবন ও অলি-গলিতে আশ্রয় নেয়। আবারও তারা সংগঠিত হয়ে মিছিল করার চেষ্টা করলে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।
কর্মসূচীতে পুলিশী হামলা ও বাধার প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল, বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টি, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল, সাম্যবাদী দল, গনতন্ত্রী পার্টি, বাম গনতান্ত্রিক মোর্চাসহ বিভিন্ন ছাত্র-যুব সংগঠন।