রাজশাহী মেডিকেল কলেজের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

মো.পাভেল ইসলাম রাজশাহী : উৎসব মুখর পরিবেশে ‘প্রিয় আঙ্গিনায় বারে বারে’ স্লোগানকে সামনে রেখে বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার মাধ্যমে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে।

শুক্রবার বেলা ১১টায় বেলুন, ফেস্টুন ও পায়রা উড়িয়ে ‘আরএমসি ডে-২০২২’ শিরোনামে আয়োজিত দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে রামেক ক্যাম্পাসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। এরপর জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বেলুন, ফেস্টুন ও পায়রা উড়ানো হয়। এরপর রামেক ক্যাম্পাসে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়।

র‌্যালিটি ডা.কাইছার রহমান চৌধুরী অডিটোরিয়ামের সামনে গিয়ে শেষ হয়। এরপর সেখানে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। দিনব্যাপী কর্মসূচিতে আরো ছিল স্মৃতি চারণ, র‌্যাফেল ড্র ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহী মেডিকেল কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা দেশে-বিদেশে কৃতিত্বের সাক্ষর রেখে চলেছেন। এই ধারাবাহিকতা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে বলে প্রত্যাশা করি।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সারাদেশে উন্নয়ন দৃশ্যমান হয়েছে। নিজস্ব অর্থে আমাদের গৌরব ও আত্মমর্যাদার পদ্মা সেতু নির্মিত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ আরো সামনের দিকে এগিয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আরএমসি ডে উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ডা. মোঃ খলিলুর রহমান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন রাজশাহী-৫ আসনের সংসদ সদস্য ডা. মনসুর রহমান এমপি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ (শিবগঞ্জ) সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল ও সংসদ সদস্য ডা. মোঃ আব্দুল আজিজ।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন স্বাচিপ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ডা. তবিবুর রহমান শেখ, রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. নওশাদ আলী, স্বাচিপ রাজশাহীর সভাপতি ডা. চিন্ময় কান্তি দাস, বিএমএ ও স্বাচিপ রাজশাহীর সাবেক সভাপতি ডা. এসআর তরফদার প্রমুখ।

স্বাগত বক্তব্য দেন রামেকের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. হাবিবুল্লাহ সরকার। সঞ্চালনা করেন আরএমসি ডে উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান।