যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কার্যকর এবং জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে – শাজাহান খান এম পি

109

যুগবার্তা ডেস্কঃ মঙ্গলবার বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের শহীদ ডা. শামসুল আলম খান মিলন সভাকক্ষে ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ১৯৫ জন পাকিস্তানী সেনা কর্মকর্তা যারা যুদ্ধাপরাধের সাথে সরাসরি জড়িত তাদের বিচার, সম্পদ বাজেয়াপ্তকরণ, জঙ্গীবাদ-সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধ ও জামায়াতে ইসলামকে নিষিদ্ধ এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুজ্জল রাখার লক্ষ্যে গঠিত “আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার” এর কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সাথে “স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ)” এর কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত থেকে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন “আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার” কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক ও মাননীয় নৌ-পরিবহন মন্ত্রী জনাব শাজাহান খান এমপি। তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কার্যকর এবং জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তিনি আগামী ৩ জানুয়ারী ২০১৬ বিকাল ৩.০০ টায় শাপলা চত্বরে বিক্ষোভ সমাবেশ ও পরে বিক্ষোভ মিছিল এবং আগামী ৬ জানুয়ারী ২০১৬ ঘাতক যুদ্ধাপরাধী আলবদর প্রধান মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির রায় বহাল রাখার দাবীতে জাতীয় প্রেসক্লাব চত্বরে সকাল ৯ টা থেকে গণঅবস্থানের ডাক দিয়েছেন। গণঅবস্থানকে সফল করার লক্ষ্যে তিনি সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।
সভায় “স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ(স্বাচিব)” এর পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন, স্বাচিব মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজ, সহ-সভাপতি ডা. রোকেয়া সুলতানা, সহ-সভাপতি ডা. মোঃ জামাল উদ্দিন চৌধুরী, যুগ্ম-মহাসচিব এ এস এম জাকারিয়াসহ আন্যান্য নেতৃবৃন্দ। “আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার” কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন সদস্য সচিব অঞ্জন রায়, সদস্য সচিব কামাল পাশা চৌধুরী, সহকারী সদস্য-সচিব কামরুল ইসলাম সবুজ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন মঞ্চের সাধারন সম্পাদক জনাব আব্দুল মালেক মিয়া, বিশিষ্ট নাট্য ব্যক্তিত্ব রোকেয়া প্রাচী, কবির আহাম্মেদ খান , এম ফরিদুজ্জামান খান, এ বি এম সুলতান আহমেদ, কাওসারুল ইসলামসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।