যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়ার বিরুদ্ধে জিহাদের ডাক আইএসের

63

সিরিয়ায় রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক অভিযানের পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার দেশ দুটির বিরুদ্ধে জিহাদের ডাক দেয় আইএস।

এক অডিওবার্তায় আইএসের মুখপাত্র আবু মুহাম্মাদ আল-আদনানি বলেন, “হে মুসলিম জওয়ানেরা যে যেখানে আছো রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে জিহাদের জন্য এসো। কেননা এটি মুসলিমদের বিরুদ্ধে ক্রুসেডারদের যুদ্ধ, এই যুদ্ধ বিশ্বাসীদের বিরুদ্ধে নাস্তিক ও মুশরিকদের যুদ্ধ।”

সিরিয়ায় আল-কায়েদার সঙ্গে সম্পৃক্ত নুসরা ফ্রন্ট রাশিয়ার বিরুদ্ধে হামলার আহ্বান জানানোর একদিন পরই আইএস বার্তা দিয়েছে।

গৃহযুদ্ধকবলিত দেশটিতে রাশিয়ার বিমান হামলার পরিপ্রেক্ষিতে নুসরা ফ্রন্টের নেতা আবু মুহাম্মাদ আল-জোলানি ককেশাস অঞ্চলে থাকা উগ্রপন্থিদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, ‘রাশিয়ানদের হত্যা কর’।

আল-জোলানি সিরিয়ায় বিবদমান সকল জিহাদি গোষ্ঠীকে নিজেদের মধ্যে লড়াই বন্ধ ও মতপার্থক্য দূরে রেখে পশ্চিমা ও রাশিয়ার ‘ক্রুসেডারদের’ বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

চলতি বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে রাশিয়া সিরিয়ায় নুসরা ফ্রন্ট ও আইএসসহ অন্যান্য জঙ্গি-সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর অবস্থান লক্ষ করে বিমান হামলা শুরু করেছে।
এই বিমান হামলা সিরীয় বিদ্রোহী-জঙ্গিদের মধ্যে ক্রোধের সঞ্চার করেছে।

গেল সপ্তায় প্রচারিত এক বিবৃতির মাধ্যমে জানা গেছে, সিরিয়ার বেশ কয়েকটি জঙ্গি-বিদ্রোহী গোষ্ঠী রাশিয়ার নেতৃত্বাধীন জোটের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য আঞ্চলিক দেশগুলোকে জোট গঠনের আহ্বান জানিয়েছে।

শক্তিশালী আহরার আল-শাম মুভমেন্টসহ ৪১টিরও বেশি জঙ্গি-বিদ্রোহী গোষ্ঠী ওই বিবৃতিতে সিরিয়ায় রাশিয়ার সেনা অভিযানকে ‘দখলদারিত্ত্ব’ বলে বিবেচনা করছে বলে উল্লেখ করে। বিবৃতিতে রাশিয়া নেতৃত্বাধীন জোটের বিরুদ্ধে আঞ্চলিক দেশগুলোকে একটি জোট গঠন করারও আহ্বান জানানো হয়।

নিষিদ্ধ ঘোষিত মুসলিম ব্রাদারহুডের সিরিয়া শাখাও একটি বিবৃতি দিয়েছে। তাতে রাশিয়ার বিরুদ্ধে জিহাদের আহ্বান জানানো হয়েছে।