মুলাদীতে গৃহবধূকে খুন্তি ছ্যাঁকা দিয়েছে পাষন্ড স্বামী

260

কল্যাণ কুমার চন্দ, বরিশাল ঃ
বরিশালের মুলাদী উপজেলার পশ্চিম চরডিগ্রি গ্রামে যৌতুকের দাবিতে সাথী বেগম (২২) নামের এক সন্তানের জননীকে গরম খুন্তি দিয়ে ছ্যাঁকা দিয়ে মুখ মন্ডলসহ শরীরের বিভিন্নস্থান ঝলসে দিয়েছে পাষন্ড স্বামী। মঙ্গলবার দুপুরে আহত গৃহবধূকে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
আহত সাথীর ভাই মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম রতনপুর গ্রামের আব্দুর রব হাওলাদারের পুত্র মোঃ কামাল হোসেন জানান, ২০০৯ সালে সামাজিকভাবে তার বোন সাথী বেগমের সাথে মুলাদীর পশ্চিম চরডিগ্রি গ্রামের মতিউর রহমান হাওলাদারের পুত্র মামুন হাওলাদারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর ৫ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে প্রায়ই তার বোনকে শারিরিক নির্যাতন করা হতো। একপর্যায়ে বাড়ির সম্পত্তি বিক্রি করে ৩ লাখ টাকা পরিশোধ করা হয়। বাকি ২ লাখ টাকার জন্য প্রায়ই সাথীকে শারিরিক নির্যাতন করা হতো। তারই ধারাবাহিকতায় রবিবার দুপুরে দাবিকৃত যৌতুকের টাকার জন্য পাষন্ড মামুন ও তার পরিবারের লোকজনে অমানুষিক নির্যাতনের একপর্যায়ে গরম খুন্তি দিয়ে সাথীর মুখ মন্ডলসহ শরীরের বিভিন্নস্থান পুড়িয়ে ঝলসে দেয়। নির্যাতনের পর সাথীকে বাড়িতে আটক করে রাখা হয়। খবর পেয়ে মঙ্গলবার সকালে তারা (সাথীর বাবার বাড়ির লোকজনে) মুর্মুর্ষ অবস্থায় সাথীকে উদ্ধার করে শেবাচিম হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।