Home মতামত মাজাও তো একটু নড়াইতে হইব

মাজাও তো একটু নড়াইতে হইব

45

সাইফুল ইসলাম শিশির:
সাতসকালে বাদলের ফোন।

  • স্যার ভালো আছেন তো?
    কেমনে আর ভালো থাকা যায় বাদল! আছি এখনো বেঁচে আছি। ওদিকে লকডাউন কেমন চলছে?
  • কামের কামতো কিছুই হচ্ছেনা স্যার। শুধু গরীবের পেটে লাত্থি। উপরে ‘আটসাট’ ভিতরে সদর ঘাট। অনেক আগেই কইছিলাম স্যার, এ মন্ত্রী দিয়া কাম হইবোনা।
    কেন?
  • লকডাউন দিল, সীমিত লকডাউন, কঠোর লকডাউন, সাটডাউন না কী জানি কয়, তাও দিল। একবেলা কয় এক কতা, আরাকবেলা কয় আরাক কতা। আমরা পাবলিক যামু কই?
    একটু ধৈর্য ধরো। মাটি কামড়ে থাকো। বিপদ একদিন কেটে যাবে।
  • আমরা শেষ পয়গম্বরের উম্মত স্যার। নাখায়া পেটে সাতটা পাথর বাইন্ধা থাকতে রাজি আছি। তাতে কী কোন কাম হইবো স্যার? করোনা কি নীলডাউন হইয়া থাকব? হইবো না।
    এতো হতাশ হচ্ছ কেন বাদল?
  • দ্যাড় বছর সময় পাইল। এহন হুনি ৩৭ জেলায় অক্সিজেন দিবো হেই মেশিনই নাই। কন! আপনিই কন স্যার! “মাজায় শুধু তাবিজ বাইন্ধা রাখলে কি পোলাপান জন্ম নিব ? মাজাও তো একটু নড়াইতে হইব। শুধু তাবিজে কাম হইব না।” কথাটা একটু ভাইবা দেইখেন স্যার।
  • গরীবের কথা তো কেউ কানে নেয় না। তবে বুদ্ধি একখান আছে স্যার — বাদল হাসে। কী বুদ্ধি বলো?
  • পরে কমুনি।
    ৭ জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
    থানা রোড, সিরাজগঞ্জ ৬৭০০

*মতামত বিভাগে প্রকাশিত সকল লেখাই লেখকের নিজস্ব ব্যক্তিগত বক্তব্য বা মতামত।