মজুরি বোর্ডের খসড়া সুপারিশ প্রসঙ্গে গার্মেন্ট টিইউসি’র বিবৃতি

যুগবার্তা ডেস্কঃ প্রহসন বন্ধ করে নিম্নতম মজুরি ১৬ হাজার ঘোষণা এবং একই হারে সকল গ্রেডে মজুরি বৃদ্ধি কর গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র’র কার্যকরি সভাপতি শ্রমিকনেতা কাজী রুহুল আমীন এবং সাধারণ সম্পাদক শ্রমিকনেতা জলি তালুকদার আজ মজুরি বোর্ড প্রকাশিত খসড়া সুপারিশকে প্রহসন বলে আখ্যা দিয়েছেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, কিছু দিন পূর্বে বিদ্যমান শ্রম আইন ও বিধিমালা লঙ্ঘন করে শ্রম প্রতিমন্ত্রী গার্মেন্ট শ্রমিকদের যে নিম্নতম মজুরি ঘোষণা করেছিলেন প্রকাশিত খসড়া সুপরিশের গেজেট তারই পূর্ণাঙ্গ রƒপ। গার্মেন্ট টিইউসিসহ আন্দোলনরত শ্রমিক সংগঠনসমূহ এবং শ্রমিকরা শ্রম প্রতিমন্ত্রীর ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করেছে। প্রকাশিত খসড়া সুপারিশে শ্রমিকদের ঠকিয়ে নিষ্ঠুর শোষণ চালানোর এবং প্রকৃত মজুরি কমিয়ে দেয়ার চক্রান্ত সুস্পষ্ট হয়েছে। এই সুপারিশ কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয় এবং শ্রমিকরা তা কখনোই মেনে নেবে না।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, ৬ষ্ট গ্রেড থেকে ১ম গ্রেড পর্যন্ত নামমাত্র মজুরি বৃদ্ধি করা হয়েছে। গত পাঁচ বছরের ইনক্রিমেন্টে শ্রমিকরা এখন যা মজুরি পান নতুন মজুরি বাস্তবায়ন হলে তারামাত্র কয়েকশত টাকা বেশি পেতে পারেন। ফলে বাজার দরের সাথে শ্রমিকের আয়ের যে আকাশ পাতাল পার্থক্য তা দূর হচ্ছে না। উপরন্তু টার্গেট আরোপ, গ্রেড ও শ্রম ঘণ্টা চুরির মাধ্যমে শ্রমিকদের প্রকৃত মজুরি আরো কমিয়ে দেয়ার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

তারা বলেন, খসড়া সুপারিশে জঘন্যভাবে শ্রমিকদের বেসিক মজুরি কর্তন করা হয়েছে। যার ফলে ওভারটাইম, চাকুরি অবসান জনীত সুবিধাসহ সকল আইনগত পাওনার ক্ষেত্রে শ্রমিকরা পদে পদে বঞ্চিত হবে।

নেতৃবৃন্দ হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, মজুরি বৃদ্ধি নিয়ে মালিক ও সরকারের এই প্রহসন বন্ধ করে অবিলম্বে নিম্নতম মজুরি ১৬ হাজার টাকা ঘোষণা এবং একই হারে সকল গ্রেডে মজুরি বৃদ্ধি করা না হলে কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে দাবি আদায় করা হবে।