মংলায় ওয়ার্ল্ড ভিশনের ত্রিশ বছরের কার্যক্রমের সমাপনী অনুষ্ঠান

62

মংলা থেকে মোঃ নূর আলম ঃ ওয়ার্ল্ড ভিশন যা শিখিয়েছে তা ধরে রাখতে পারবো কী না উন্নয়নকে টেকসই করতে পারবো কী না তা চিন্তা করতে হবে। ্ওয়ার্ল্ড ভিশন ৩০ বছর যা শিখিয়েছে তা ধরে রাখতে হবে। বৈদেশিক সাহায্য আজীবন পাবো তা মনে করা সম্মানহানী। নিজের পায়ে দাড়াতে হবে। এখন আমাদের টেকসই উন্নয়নের দিকে ধাবিত হতে হবে। ৮ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে মংলার শেলাবুনিয়ায় সেন্ট পল্স মিশন হল রুমে ওয়ার্ল্ড ভিশন’র আয়োজনে ৩০ বছর কার্যক্রমের সমাপ্তির লক্ষ্যে ধন্যবাদ ্ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাংগীর আলম এ কথা বলেন।
মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকালে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ’র সাউদার্ন রিজ্ওিন’র ডিরেক্টর অতুল ম্রং। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ’র গ্রুপ ডিরেক্টর উইলফ্রেড সিকুকুলা, উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হ্ওালাদার, উপজেলা নির্বাহি অফিসার মুহাম্মদ আলী প্রিন্স ও ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ’র ন্যাশনাল চীফ এ্যাডভাইজার স্টিফেন কে হালদার। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ্ওয়ার্ল্ড ভিশন মংলা এডিপি ম্যানেজার লাভলু খান। এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিব্ওি নেত্রী শিখা হালদার ও শিশু ফোরামের রায়হান ফেরদৌস। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ ইদ্রিস আলী, উপজেলা আ্ওয়ামীলীগ সভাপতি অধ্যক্ষ সুনিল কুমার বিশ্বাস, মংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এইচ এম দুলাল, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ নূর আলম শেখ, সুজন সভাপতি ফ্রান্সিস সুদান হালদার প্রমূখ। বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় ্ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ’র গ্রুপ ডিরেক্টর বলেন, মংলা একটি দুর্যোগ ঝুঁকিপূর্ন এলাকা। সামনের দিন গুলিতে অপ্রত্যাশিত কোন দুর্যোগ আসলে ওয়ার্ল্ড ভিশন সবার আগে আসবে। ্ওয়ার্ল্ড ভিশনের স্পন্সর সাহায্য হয়তো মংলায় থাকবে না কিন্তু অন্যান্য সহযোগিতা থাকবে। অন্য কোন বিকল্প পদ্ধতিতে কীভাবে কাজ করা যায় সে চেষ্টা থাকবে। আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের বলেন শিক্ষা-চিকিৎসা-নিরাপদ পানি-শিশুর বিকাশ এবং স্বাস্থ্য সচেতনতার জন্য ্ওয়ার্ল্ড ভিশন যে কাজ করেছে তা মংলা বাসী চিরদিন মনে রাখবে। আলোচনা সভার আগে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী মংলা শহর প্রদক্ষিন করে। অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশ করে সুন্দরবন থিয়েটার। ধন্যবাদ ্ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ অনুষ্ঠানে সাংবাদিক-শিক্ষক-নারী-শিশু-জনপ্রতিনিধি-সরকারি কর্মকর্তা-এনজ্্িও এবং সুশীল সমাজের সহসাধিক ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।