ভারতকে শীঘ্রই চট্রগ্রাম বন্দর ব্যবহারের অনুমতি দিচ্ছে বাংলাদেশ

138

যুগবার্তা ডেস্কঃ ভারতের একটি দীর্ঘ প্রতীক্ষিত চাহিদার সমাধানে শীঘ্রই দেশটিকে চট্রগ্রাম বন্দরে সরাসরি প্রবেশাধিকারের অনুমোদন দিতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। বিষয়টি এগিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে সমন্বয় সাধনে উভয়পক্ষই কাজ করায় এমনটাই আশা করা হচ্ছে। এ প্রতিবেদন ‘দ্যা হিন্দু বিজনেস লাইনে’র।
বাংলাদেশ একটি স্ট্যান্টার্ড অপারেটিং প্রোসিডিউর বা মানসম্মত পরিচালনা পদ্ধতির (এসওপি) ওপর কাজ করে যাচ্ছে। এর ফলে চট্রগ্রাম বন্দরে ভারতের সরাসরি প্রবেশাধিকার নিশ্চিত হবে। যা দ্বিপক্ষীয় ও আন্ত:আঞ্চলিক বাণিজ্য জোরদার করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।
বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মো: শহিদুল হক এ বিষয়ে বিজনেস লাইনকে বলেন, ‘আশা করছি এটা শিঘ্রই প্রকাশ করা হবে। আমরা অন্যান্য বিষয়ে এগিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে সমন্বয় সাধনে কাজ করছি। এর ধারাবাহিকতায় ভারত চট্রগ্রাম বন্দরে প্রবেশাধিকার পাবে।
সাম্প্রতিক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বন্দরের সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিতের প্রচেষ্টায় উভয় দেশের মধ্যে একটি যৌথ সাহচর্য তৈরির প্রস্তাব করেন।
ভারত বাংলাদেশের চট্রগ্রাম বন্দরে সরাসরি প্রবেশাধিকারের জন্য প্রায় পাঁচ বছর ধরে দাবি জানিয়ে আসছে। এটা অনুমোদিত হলে ভারতের শিল্প ও রপ্তানিকারকরা মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার সাশ্রয় করতে পারবে।
গত বছর উভয় প্রতিবেশি চট্রগ্রাম ও মংলাবন্দর ব্যবহার করার জন্য একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করে।
শহিদুল হক আরও বলেন, ভারত বাংলাদেশ দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ইতিহাসে একটি যৌথ সামুদ্রিক সহযোগিতার ওপরও কাজ করছে।মমিনুল ইসলাম ,আমাদের সময়.কম