‘বিষে’ লাল হচ্ছে টমেটো

রাজশাহী অফিস : ‘টমেটোর রাজ্য’ রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় জমি থেকে উঠছে উন্নতজাতের শীতকালীন হাইব্রীড টমেটো। কিন্তু এ টমেটো পরিপক্ক অবস্থায় জমি থেকে তোলা হচ্ছে না। অপরিপক্ক টমেটো জমি থেকে উঠিয়ে তাতে এক ধরনের রাসায়নিক ‘বিষ’ স্প্রে করা হচ্ছে। আর এতেই সবুজ টমেটো হয়ে উঠছে লাল টুকটুকে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, টমেটোতে অতিমাত্রায় এই ‘বিষ’ স্প্রে করা হলে তা স্বাস্থ্যর জন্য হবে মারাত্মক ক্ষতিকর।

এ অবস্থায় গোদাগাড়ীতে অভিযান চালিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। স্বাস্থ্যর জন্য ক্ষতিকর ইথিফন গ্রুপের এই রাসায়নিক ‘বিষ’ টমেটোতে স্প্রে করার অপরাধে লাখ টাকা জরিমানাও আদায় করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে গোদাগাড়ী পৌরসভার হেলিপ্যাড মাঠে এই অভিযান চালানো হয়।

র‌্যাব-৫ এর চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের এএসপি নূরে আলমের নেতৃত্বে এই অভিযান চলে। এ সময় ইথিফন স্প্রের অপরাধে ১০ চাষি-ব্যবসায়ীকে হাতেনাতে আটক করা হয়। পরে সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসানো হয়। আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মনির হোসেন আটকদের এক লাখ টাকা অর্থদন্ড দেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, উপজেলা সদর ডাইংপাড়া মোড়ের হারুন-অর-রশিদ (৩৫), রামনগর এলাকার মোশাররফ হোসেন (৩৪), সরমঙলা গ্রামের সাদিকুল ইসলাম (৩৪), গাইবান্ধার পলাশবাড়ি উপজেলার রাজনগর গ্রামের লাল মিয়া (৩৪), চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর গ্রামের ইউনুসুর রহমান (৪০), শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার শাকেরচর গ্রামের বেলাল হোসেন (৩৪), একই উপজেলার চর ঘোড়াতলা গ্রামের লিটন মিয়া (৩৫), চব্বিশপাড়া গ্রামের রতন সরকার (৩৮), চরখরাতুনা গ্রামের আলমগীর হোসেন (৩৮) ও চরকামার গ্রামের মজিবর রহমান (৩৫)।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনির হোসেন জানান, গোদাগাড়ীর কৃষকদের পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ব্যবসায়ীরা এখানে এসে কম দামে কাঁচা টমেটো কিনছেন। এরপর তারা খোলা জায়গায় টমেটোকে রোদে রেখে তাতে ইথিফন গ্রুপের হরমোন স্প্রে করছেন। এই হরমোন অতিমাত্রায় ব্যবহার হলে তা স্বাস্থ্যর জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। এ জন্য তারা অভিযান শুরু করেছেন। অভিযানের প্রথম দিনই ভোক্তা সংরক্ষণ আইনে এসব চাষি-ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে মোট এক লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

সারাদেশে উৎপাদিত মোট শীতকালীন টমেটোর তিন ভাগের দুই ভাগই উৎপাদন হয় গোদাগাড়ীতে। আগাম টমেটো বাজারজাত করে লাভের আশায় এখানকার চাষিরা জমি থেকে কাঁচা টমেটো তোলেন। এরপর তাতে স্প্রে করা হয় ইথিফন গ্রুপের হরমোন। চলতি মৌসুমে গোদাগাড়ীতে দুই হাজার ৪২০ হেক্টর জমিতে শীতকালীন টমেটোর চাষ হয়েছে। গত বছর চাষ হয়েছিল দুই হাজার ৬০০ হেক্টর জমিতে।