বিপ্লবী শ্রেণী ও গণসংগ্রাম ভিত্তিতে ওয়ার্কার্স পার্টিকে জনগণের বিকল্প শক্তি হিসেবে গড়ে তুলতে হবে– মেনন

160

যুগবার্তা ডেস্কঃ বিপ্লবী শ্রেণী ও গণসংগ্রামের ভিত্তিতে ওয়ার্কার্স পার্টিকে জনগণের বিকল্প শক্তি হিসেবে গড়ে তুলে গরিব-দুখী মানুষের স্বপ্ন পূরণের আহ্বান জানিয়েছেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন। আজ রবিবার ঢাকা মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির বৃহত্তর মতিঝিল থানার প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ অভিযানে তিনি এই আহ্বান জানান।
মহানগর পার্টির সভাপতি কমরেড আবুল হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা, মহানগর সাধারণ সম্পাদক কমরেড কিশোর রায় ও মতিঝিল থানার সম্পাদক কমরেড মুর্শিদা আখতার নাহার। পার্টি ঘোষিত দুমাস ব্যাপী এই সদস্য সংগ্রহ অভিযান চলবে।
প্রধান অতিথির ভাষণে কমরেড রাশেদ খান মেনন বলেন, বাংলাদেশ থেকে সাম্রাজ্যবাদী ষড়যন্ত্র, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িক রাজনীতি চিরতরে উচ্ছেদ করতে হলে ওয়ার্কার্স পার্টিকে শক্তিশালী ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে হবে। এই জন্য পার্টিকে গরিব-মেহনতি মানুষের মধ্যে শক্ত ভীত তৈরি করতে হবে। ওয়ার্কার্স পার্টির সকল নেতা-কর্মীদের দায়িত্ব হচ্ছে দেশের গরিব-মেহনতি মানুষকে ওয়ার্কার্স পার্টির পতাকা তলে ঐক্যবদ্ধ করা। আজকের প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ অভিযানের মধ্য দিয়ে ওয়ার্কার্স পার্টি নবযাত্রা শুরু হলো। এই যাত্রা অব্যাহত রাখতে হবে। ওয়ার্কার্স পার্টিকে আগামীতে জাতীয় রাজনৈতিক শক্তি গড়ে তুলতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।
বিশেষ অতিথির ভাষণে কমরেড বাদশা বলেন, ওয়ার্কার্স পার্টি শ্রেণী বিপ্লবের পার্টি। ওয়ার্কার্স পার্টি তার ঘোষিত রাজনৈতিক আদর্শ ও উদ্দেশ্য থেকে বিচ্যুত হওয়ার সুযোগ নেই। ওয়ার্কার্স পার্টির নেতাকর্মীরা পার্টির আদর্শের ওপর ভিত্তি করে গরিব মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের লড়াই সংগ্রাম অব্যাহত রাখতে হবে এবং বাংলাদেশকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক দেশে পরিণত করতে হবে। ওয়ার্কার্স পার্টির নেতাকর্মীরা আগামী দিনের গণতান্ত্রিক সংগ্রাম ও সমাজ বদলের সংগ্রামে চ্যাম্পিয়ন হতে হবে।
সভায় উপস্থিত ছিলেন পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য কমরেড আনিসুর রহমান মল্লিক, কমরেড মাহমুদুল হাসান মানিক, কমরেড কামরূল আহসান, কমরেড আমিনুল ইসলাম গোলাপ, কেন্দ্রীয় নেতা কমরেড তপন দত্ত, মোস্তফা আলমগীর রতন, সাব্বাহ আলী খান কলিন্স, জাকির হোসেন রাজু প্রমুখ।