বিদ্যুৎ ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ অব্যাহত

56

যুগবার্তা ডেস্কঃ বিদ্যুৎ ও গ্যাসের মুল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিভিন্ন সরব হয়ে উঠছে। প্রতিদিন মিছিল সমাবেশ অব্যাহত রয়েছে। এমনকি খোদ সরকারি জোটের দলগুলো ছাড়াও আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব থেকেও সমালোচনা আসছে। অবিলম্বে মূল্য বৃদ্ধি প্রতাহারের দাবি করছেন। রাজনৈতিক দলগুলোর পাশাপাশি ব্যবসায়ী সংগঠনগুলো একই দাবি তুলছে। ইতিমধ্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের উপর প্রভাব পড়ছে। বাজারে জিনিস পত্রের দাম বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। নিন্ম ও মধ্যম আয়ের মানুষের মধ্যে অস্থিরতা বেড়েই চলছে।
ইতিমধ্যে জাতীয়তাবাদী দল, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টি, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল, গণতন্ত্রী পার্টি, সাম্যবাদী দল, গণতান্ত্রিক লীগ সহ বিভিন্ন দল ও সংগঠন প্রতিবাদ করেছেন। আজ ২৯ আগস্ট বিকেল ৪টায় বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির ঢাকা মহানগর কমিটির উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সম্মুখে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। মহানগর সভাপতি কমরেড আবুল হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, বিদ্যুৎ ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির কোন কারণ নেই। আন্তার্জাতিক বাজারে তেলের মূল্য অর্ধেকের নিচে নেমে আসায় বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি তুঘলকি কারবার। বিদ্যুৎ ও গ্যাস খাতের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা এনাজি রেগুলেটরি কমিশণ গত ফেব্রুয়ারী মাসে যে গণশুনানী করে সেখানে তারা মূল্য বৃদ্ধির কোন যৌক্তিকতা দেখাতে পারে নাই। কিন্তু গণশুনানীর কোন ব্যাখ্যায় না গিয়ে হঠাৎ এই মূল্য বৃদ্ধি সাধারণ ভোক্তা ও জনগণের উপর অতিরিক্ত ব্যয় চাপানোর কৌশল মাত্র। এই মূল্য বৃদ্ধি উৎপাদন ব্যবস্থায় অতিরিক্ত ব্যয় চাপাবে যার ভার নিতে হবে সাধারণ মানুষকে। আমরা এই অন্যায্য মূল্য বৃদ্ধি মেনে নিতে পারিনা। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চায় জ্বালানী খাতে অদক্ষ, দুর্নীতিবাজ, জনস্বার্থ পরিপন্থি কিছু মানুষের মস্তিষ্ক প্রসুত ভাবনা থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে জনগণের নির্বাচিত প্রতিধি জ্বালানী মন্ত্রী কর্তৃক আবারও মূল্য বৃদ্ধির ঘোষণা জনগণের বিরুদ্ধে হুমকির শামিল। এতে জনগণ ক্ষতিগ্রস্ত হবে এবং এর দারায় সরকারকে বহন করতে হবে। আমরা বলতে চাই জ্বালানী তেলের মূল্য আন্তর্জাতিক বাজারের সাথে সঙ্গতি রেখে জ্বালানী তেলে মূল্য পু:ণনির্ধারণষ করে কমাতে হবে এবং তার সাথে সঙ্গতি রেখেই বিদ্যুতের দাম কমাতে হবে। শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।