বিএনপি নেতা রফিকুল-আমানসহ ৪৭ নেতাকর্মীর বিচার শুরু

যুহবার্তা ডেস্ক: রাজধানীর মিরপুর থানার বিস্ফোরক ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের করা মামলায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াসহ ৪৭ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। অভিযোগ গঠনের ফলে মামলা দুইটির আনুষ্ঠানিকভাবে বিচার শুরু হয়েছে।

মঙ্গলবার ঢাকার ৮ নং বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মাসুদ পারভেজ আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ১৯ মার্চ দিন ধার্য করেন।

অভিযোগ গঠনের সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, যুগ্ম-মহাসচিব হাবীব উন নবী খান সোহেল, নির্বাহী কমিটির সদস্য সৈয়দা আশরাফি পাপিয়াসহ ১৭ নেতাকর্মী। অপরদিকে অভিযোগ গঠনের সময় আদালতে হাজির না হওয়ায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আমান উল্লাহ আমানসহ ৩০ জনের রিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

মামলার উল্লেখযোগ্য আসামিরা হলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, ভাইস চেয়ারম্যান আমান উল্লাহ আমান, যুগ্ম-মহাসচিব হাবীব উন নবী খান সোহেল, নির্বাহী কমিটির সদস্য সৈয়দা আশরাফি পাপিয়া, বিএনপির নেতা সাইফুল ইসলাম নিরব, আজিজুল বারী হেলাল, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২ ফেব্রুয়ারি বিএনপির হরতাল অবরোধ চলাকালে মিরপুর থানাধীন মনিপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজ এলাকায় আসামিরা অগ্নি সংযোগ, গাড়ি ভাঙচুর ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এ ঘটনায় মিরপুর থানার উপ-পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম একটি মামলা করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ২ এপ্রিল রফিকুল ইসলাম মিয়াসহ ৪৭ জনের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে পৃথক দুইটি চার্জশিট দাখিল করে মিরপুর থানার উপ-পরিদর্শক মাসুদ পারভেজ।