বিএনপির ভিশন ২০৩০ ঘোষণা

30

যুগবার্তা ডেস্কঃ রাষ্ট্র ক্ষমতায় গেলে বিএনপি কীভাবে দেশ পরিচালনা করবে তার রূপকল্প বা ‘ভিশন ২০৩০’ ঘোষণা করছেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টায় গুলশানের হোটেল ওয়েস্টিনের বলরুমে এই সংবাদ সম্মেলনে এঘোষণা দেন।
ভিশন ২০৩০ হচ্ছে বিএনপির রাষ্ট্রপরিচালনার একটি পূর্ণাঙ্গ রূপরেখা। বিএনপি কীভাবে দেশকে উন্নয়নের শিখরে এগিয়ে নিতে চায়, রাষ্ট্র ব্যবস্থাপনা কীভাবে ঢেলে সাজাতে চায়, মানুষের মৌলিক অধিকারগুলো কীভাবে নিশ্চিত করা হবে, মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ কীভাবে সৃষ্টি করা হবে, অর্থনৈতিক সংস্কার কেমন হবে এবং বহির্বিশ্বের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কের ধরন কেমন হবে- সেসব বিষয়ের বিস্তারিত এই রূপরেখায় বলেন।
সোমবার বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এই রূপকল্পে অনুমোদন দেন খালেদা জিয়া।
২০০৬ সালে ক্ষমতা ছাড়ার পর দুই দফায় সরকারবিরোধী আন্দোলনে গিয়েও সাফল্য পায়নি খালেদা জিয়ার দল। দশম জাতীয় নির্বাচন বর্জন করে বিএনপি এখন সংসদের বাইরে রয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে বিদেশি কূটনীতিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাপান, জার্মানি, যুক্তরাজ্য, তুরস্ক, দক্ষিণ কোরিয়া, ভারত, চীন, পাকিস্তান, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ইন্দোনেশিয়া ও কাতারের প্রতিনিধিরা। ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ও জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, তরিকুল ইসলাম, জমির উদ্দিন সরকার, মাহবুবুর রহমান, রফিকুল ইসলাম মিয়া, এম কে আনোয়ার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও নজরুল ইসলাম খান উপস্থিত ছিলেন।
এ ছাড়া দলের ভাইস চেয়ারম্যানদের মধ্যে ছিলেন আবদুল্লাহ আল নোমান, শাহজাহান ওমর, আবদুল মান্নান, এ জে মোহাম্মদ আলী, হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, খন্দকার মাহবুব হোসেন, রুহুল আমিন চৌধুরী, ইনাম আহমেদ চৌধুরী, আবদুল আউয়াল মিন্টু, শামসুজ্জামান দুদু, নিতাই রায় চৌধুরী, সেলিমা রহমান প্রমুখ। এ ছাড়া চেয়ারপারসনের উপদেষ্টাদের মধ্যে ছিলেন আমান উল্লাহ আমান, জয়নুল আবদিন ফারুক, হাবিবুর রহমান হাবিব, আতাউর রহমান ঢালি, তাজমেরী এস এ ইসলাম ও অধ্যাপক সুকোমল বড়ুয়া।
জোটের শরিক দলের নেতাদের মধ্যে ছিলেন আন্দালিব রহমান পার্থ, শফিউল আলম প্রধান, সৈয়দ মোহাম্মদ ইবরাহীম, জেবেল রহমান, ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, মুফতি ওয়াক্কাস, মোস্তফা জামাল হায়দার, মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, সাইফুদ্দিন আহম্মেদ মনি, এ এইচ এম কামরুজ্জামান খান, আজহারুল ইসলাম এবং সাঈদ আহমেদ।