বিএনপির জাতীয় ঐকের আহ্বান রাজনৈতিক চাতুরতা ছাড়া আর কিছুই নয়—মেনন

186

যুগবার্তা ডেস্কঃ “জঙ্গিবাদ জামায়াতের সঙ্গে সম্পর্ক, পেছনের দরজা দিয়ে মোসাদ আইএসের সঙ্গে ষড়যন্ত্র আতাত করে বিএনপির জাতীয় ঐকের আহ্বান রাজনৈতিক চাতুরতা ছাড়া আর কিছুই নয়। বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ধারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সঙ্গে জড়িত। সেটি অনুধাবন করতে হবে।”আজ শনিকবার পল্টন মোড়স্থ ফেনী সমিতি মিলনায়তনে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি কেন্দ্রীয় কমিটির বিকল্প সদস্যদের এক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন।
পার্টির কেন্দ্রীয় মতাদর্শ ও প্রশিক্ষণ বিভাগের ইনচার্জ কমরেড বিমল বিশ্বাসের সভাপতিত্বে ফেনী সমিতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত প্রশিক্ষণ শিবিরে বিশেষ অতিথি পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, প্রতিটি পার্টি কর্মীকে জনগণের মাঝে থেকে কাজ করতে হবে। বাংলাদেশে জঙ্গিবাদী অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করতে হলে গ্রাম শহরের গরিব মেহনতি মধ্যবিত্ত মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে। কমরেড বাদশা বলেন, বাংলাদেশের যুদ্ধাপরাধের বিচারকে কেন্দ্র করে পাকিস্তান ও তুরস্ক যে ন্যাক্কারজনক কূটনৈতিক শিষ্টাচার বহির্ভূত আচরণ বার বার করছে তাতে দেশ দুটির সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধকালীন লুটপাট ও ক্ষয়ক্ষতির জন্য পাকিস্তানের কাছে সকল পাওনা আদায় এবং পাকিস্তান সেনাবাহিনীর চিহ্নিত ১৯৫ জন যুদ্ধাপরাধীর বিচার করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের জাতীয় সংসদের দ্বারস্থ হওয়া উচিত। কমরেড বাদশা আরও বলেন, ৬০-এর দশকে সংখ্যালঘুদের গণহারে হত্যা তদন্ত করে বাংলাদেশেরও পাকিস্তান নামক রাষ্ট্রের ফ্যাসিস্ট কার্যক্রমের বিরুদ্ধেই বরং জাতিসংঘে বাংলাদেশের যাওয়া উচিত।
প্রশিক্ষণ কর্মশালায় আরো উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো ও কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ বিভাগের সদস্য কমরেড নুর আহমদ বকুল, শরীফ শমশীর প্রমুখ।