বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত সিল করে দেয়ার কথা বললেন অমিত শাহ

66

যুগবার্তা ডেস্কঃ ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) অগ্রাধিকার হলো ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত সিল করে দেয়া। আসামে বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারণা শনিবার এ কথাই পুনর্ব্যক্ত করেছেন বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ।
তিনি বলেছেন, যদি বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট আসামে সরকার গঠন করতে পারে তাহলে রাজ্যের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈয়ের বিরুদ্ধে যেসব দুর্নীতির অভিযোগ আছে তার সবটাই তদন্ত করা হবে।
অনলাইন দ্য এশিয়ান এইজ এ খবর দিয়েছে। এতে বলা হয়, শনিবার আসামে এক সংবাদ সম্মেলন করেন অমিত শাহ। এ সময় তিনি বলেন, আমরা আসাম চুক্তি মেনে চলতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ১৯৮৫ সালে যে আসাম চুক্তি হয়েছিল সরকার তা মেনে চলবে, যদি আমরা সরকার গঠন করতে পারি। তাকে বাংলাদেশী বিতাড়ন প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হয়েছিল।
জবাবে তিনি বলেন, এটা এমন একটি বিষয় যা নিয়ে আসাম, ভারত ও বাংলাদেশ এক সঙ্গে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, এরই মধ্যে আমরা বাংলাদেশের সঙ্গে সীমান্ত বিরোধ নিষ্পত্তি করেছি। এর আওতায় আমরা আন্তর্জাতিক সীমান্ত সিল করে দিতে পারবো। আসামের নির্বাচনকে তিনি শুধু আসামের জন্য নয় পুরো উত্তর-পূর্ব ভারতের জন্য একটি বিশেষ নির্বাচন হিসেবে আখ্যায়িত করেন।
বলেন, এ অঞ্চল কি দেশের বাকি অঞ্চলের সঙ্গে এক সঙ্গে উন্নয়নের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাবে কিনা তা নির্ধারণ হবে এ নির্বাচনের মাধ্যমে। এ সময় তিনি দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন, বিজেপি নেতৃত্বাধীন অসম গণ পরিষদ, বোরোল্যান্ড পিপলস ফ্রন্ট ও টিওয়া, রাবা শুধু বিজয়ীই হবে না। তারা নির্বাচনে দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে।
উল্লেখ্য, আসামের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈয়ের বিরুদ্ধে নানাবিধ দুর্নীতির অভিযোগ এনেছেন বিজেপি নেতা হিমান্ত বিশ্বাস শর্মা। এ রাজ্যে প্রথম নির্বাচন হয়েছে ৪ঠা এপ্রিল। দ্বিতীয় ও শেষ দফায় নির্বাচন আগামীকাল ১১ই এপ্রিল।