“বশেমুরবিপ্রবি প্রক্টরের প্রতি অনাস্থা প্রকাশ করে ১৭ সহকারী প্রক্টরের লিখিত অভিযোগ”

9

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) প্রক্টর ড. রাজিউর রহমানের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে উপাচার্যের কাছে ২২ জন সহকারী প্রক্টরের মধ্যে ১৭ জন সহকারী প্রক্টর লিখিত অভিযোগ করেছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্য প্রফেসর ড .এ. কিউ. এম. মাহবুব জানান, “গতকাল অভিযোগ পত্রটি পেয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পর এ বিষয়ে যথাযথ সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

অভিযোগকারীদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, “প্রক্টর ড. রাজিউর রহমানের পদ অবৈধ। শুধু তিনি নয় চলতি দায়িত্বে থাকা উপাচার্য প্রফেসর ড.মো:শাহাজাহান এর সময় নিয়োগ পাওয়া সহকারী প্রক্টর পদও অবৈধ।”

এসময় তারা আরও জানান, “প্রফেসর ড. মোঃ শাহজাহান উপাচার্য ( চলতি দায়িত্বে) থাকাকালীন সময়ে তিনি নিয়োগ পায় প্রক্টর পদে। কিন্তু যা চলতি দায়িত্বে থাকা উপাচার্যের ক্ষমতার বাহিরে।”

এছাড়াও উক্ত অভিযোগপত্রে আরও উল্লেখ করা হয়, “উপাচার্যের চলতি দায়িত্বে থাকাকালীন একজন স্থায়ী উপাচার্যের গাড়ি,অফিস ব্যবহার সহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা ব্যবহার করতে পারবেন না। কিন্তু প্রফেসর ড .মোঃ শাহাজাহান এগুলো অবৈধ ভাবে ব্যবহার করেছেন।”

প্রক্টরের প্রতি অনাস্থার কারণ সম্পর্কে কথা বললে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন সহকারী প্রক্টর বলেন, “সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটে যাওয়া কয়েকটি বিষয়ে সহকারী প্রক্টর মহোদয়দেরকে অবহিত না করা এবং সমন্বয়হীনতার প্রতি এই অনাস্থা তৈরি হয়।”

তিনি আরও বলেন, “শুধু তাই নয় তার প্রক্টর পদ অবৈধ। তিনি ক্ষমতায় থাকাকালীন কোন সিদ্ধান্ত নিলেও সেই পদ অবৈধ হবে।”

এ বিষয়ে প্রক্টর ড. রাজিউর রহমান এর সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।