বরিশালে বিপুল পরিমান মাদক দ্রব্যসহ আটক-৮

বরিশাল অফিস ॥
মাদক বিক্রি চক্রের পাঁচ নারীসহ আটজনকে আটক করেছে ডিবি পুলিশের সদস্যরা। আটককৃতদের স্বীকারোক্তিনুযায়ী উদ্ধার করা হয়েছে ৮০ বোতল ফেন্সিডিল, ১ হাজার ৫১ পিস ইয়াবা এবং ২৫ গ্রাম গাঁজা। বৃহস্পতিবর সারারাত ব্যাপী নগরীর বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে উল্লেখিতদের আটক ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়। এছাড়া শুক্রবার সকালে নগরীতে পৃথক এক অভিযানে বিরল প্রজাতির বন্যপ্রাণী টক্কনাথসহ দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
মাদক বিরোধী অভিযানে গ্রেফতারকৃতরা হলো-শাকিল খান সেন্টু, রিপন ডাকুয়া, হারিছুর রহমান রাজিব, তাহমিনা বেগম, শাহনাজ আক্তার সাথী, সুমি আক্তার, সালমা খানম ও রোজি আক্তার রিমি। শুক্রবার সকালে মহানগর ডিবি পুলিশের কার্যালয়ে মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র সহকারী কমিশনার মোঃ নাসির উদ্দিন সংবাদ সম্মেলনে বলেন, সেন্টু ও তার স্ত্রী তাহমিনা চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। গ্রেফতার হওয়া অপর নারীসহ অন্যরা সেন্টুর মাদক খুচরা বাজারে বিক্রির দায়িত্ব পালন করে আসছে। সেন্টুর বিরুদ্ধে এর আগেও বরিশাল ও ঝালকাঠী থানায় মোট পাঁচটি মামলা রয়েছে।
সহকারী কমিশনার আরও জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নগরীর হাতেম আলী কলেজ চৌমাথা এলাকা দিয়ে মোটরসাইকেলে যাওয়ার সময় রিপন ডাকুয়া ও রোজি আক্তার রিমিকে আটক করে তাদের কাছ থেকে ৫০ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়। ওই দুইজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তারা জানায় ফেন্সিডিলের মালিক সেন্টুর। তারা বাহক হিসাবে ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দেয়ার কাছ করছে। রিমি ও রিপনের স্বীকারোক্তীনুযায়ী নগরীর ব্রাউন কম্পাউন্ড ও গোরাচাঁদ দাস রোডে অভিযান চালিয়ে সেন্টুসহ অন্যদের গ্রেফতার এবং অন্যান্য মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়।
অপরদিকে শুক্রবার সকালে নগরীর লঞ্চঘাট থেকে একটি টক্করনাথ প্রাণীসহ মনির হোসেন হাওলাদার ও বাবুল আকন নামের দুইজনকে গ্রেফতার করেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতদের বাড়ি খাগড়াছড়ি জেলার মানিকছড়ি উপজেলায়। তারা বিরল প্রজাতির ওই প্রাণী পাঁচার ব্যবসার সাথে জড়িত।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডিসি ট্রাফিক উত্তম কুমার পাল, এসি ডিবি নাসির উদ্দিন মল্লিক, ওসি নুরুল ইসলাম, মাহাবুবুর রহমান ও মাহাবুব হোসেন।