প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘের ৭০ তম অধিবেশনে নিউইয়র্ক গেছেন

855

যুগবার্তা ডেস্কঃ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭০ তম অধিবেশনে যোগ দিতে আজ বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক রওয়ানা হয়ে গেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সাধারণ পরিষদের এবারের বিতর্কেরমূল প্রতিপাদ্য ‘৭০ বছরে জাতিসংঘ-পদক্ষেপের জন্য নতুন অঙ্গীকার’। প্রধানমন্ত্রী ৩০ সেপ্টেম্বর সাধারণ পরিষদে বাংলাদেশের পক্ষে বাংলায় বক্তব্য দেবেন।
জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের এবারের অধিবেশনের মূল আয়োজন ২০১৫ পরবর্তী উন্নয়ন লক্ষ্য বা টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য (এসডিজি) চূড়ান্তভাবে গ্রহণ বিষয়ক শীর্ষ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী অংশ নেবেন। এ ছাড়া শেখ হাসিনা মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার উদ্যোগে ২৮ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় হাই লেভেল সামিট অন পিস অপারেশনে যৌথ সভাপতিত্ব করবেন। ২৯ সেপ্টেম্বর ওবামার উদ্যোগে আযয়োজিত লিডার্স সামিট অন কাউন্টারিং আইএসআইএল অ্যান্ড ভায়োলেন্ট এক্সট্রিমিজম-এ যোগ দেবেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবারের নিউইয়র্ক সফরে ৬০ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী ছাড়াও এবার প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে নিউইয়র্ক যাচ্ছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা মসিউর রহমান ও পররাষ্ট্রবিষয়ক উপদেষ্টা গওহর রিজভী এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম। এ ছাড়াও একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দল নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যোগ দেবেন।
প্রধানমন্ত্রী ২৭ সেপ্টেম্বর এসডিজি বিষয়ক শীর্ষ সম্মেলনের কর্ম অধিবেশনে বক্তব্য দেবেন। প্রধানমন্ত্রী তাঁর বক্তৃতায় বাংলাদেশের অগ্রাধিকারগুলো তুলে ধরবেন এবং এমডিজি অর্জনের সাফল্যের ধারায় টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নে বাংলাদেশের অঙ্গীকার ও প্রত্যয়ের কথা পুনর্ব্যক্ত করবেন। ওই শীর্ষ সম্মেলনের অংশ হিসেবে ২৬ সেপ্টেম্বর তিনি বেলজিয়ামের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফস্টারিং সাসটেইনেবল ইকোনমিক গ্রোথ, ট্রান্সফরমেশন অ্যান্ড প্রমোটিং সাসটেইনেবল কনসাম্পশন অ্যান্ড প্রডাকশন শীর্ষক একটি সংলাপে যৌথ সভাপতিত্ব করবেন। এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের অন্যতম সরকার প্রধান হিসেবে তাঁকে এই বৈঠকে যৌথ সভাপতিত্ব করার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী ২৯ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে বাংলাদেশের উদ্যোগে আয়োজিত ‘এমডিজি থেকে এসডিজিতে পরিক্রমা; বাংলাদেশের অভিজ্ঞতা ও প্রত্যাশা’ শীর্ষক বিশেষ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। ওই অনুষ্ঠানে জাতিসংঘ ও বিভিন্ন দেশের শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে। একই দিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্রের বিজনেস কাউন্সিল ফর ইন্টারন্যাশনাল আন্ডারস্ট্যান্ডিংয়ের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্ভাবনা নিয়ে মতবিনিময় করবেন।
জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের ফাঁকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন ছাড়াও বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। এ সব বৈঠকের তারিখ ও সময় এখন চূড়ান্ত করা হচ্ছে।
আগামী ৩ অক্টোবর দেশে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী।
*তথ্যসূত্র আওয়ামীলীগ*