পানামা পেপার্স : মোসাক ফনসেকার কার্যালয়ে ‘এল সালভাদরে’র অভিযান

53

যুগবার্তা ডেস্কঃ ‘এল সালভাদরে পানামার ল’ ফার্ম’ মোস্যাক ফনসেকার কার্যালয়ে কর্মকর্তারা অভিযান চালিয়েছেন বলে দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে।
বিবিসি বলছে, কর্মকর্তারা ট্যুইটার বার্তায় জানিয়েছেন, এল সালভাদরে মোস্যাক ফনসেকার এই শাখা থেকে বিভিন্ন নথি ও কম্পিউটার জব্দ করা হয়েছে।
সম্প্রতি পানামার একটি ল’ ফার্মের এক কোটি দশ লাখ গোপন নথি ফাঁস হওয়ার পর বিশ্বজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে; বিশ্বের ধনী আর ক্ষমতাধর ব্যক্তিরা কোন কৌশলে কর ফাঁকি দিয়ে গোপন সম্পদের পাহাড় গড়েছেন বেরিয়ে আসছে সেই তথ্য।
চলতি সপ্তাহে গণমাধ্যমে আসা মোস্যাক ফনসেকার এসব নথি কেবল রাজনীতিবিদ নয়, ব্যবসায়ী, চোরাকারবারী, বিশ্বখ্যাত ফুটবলার, বলিউড তারকাসহ অনেকেরই গোমর ফাঁস হয়ে গেছে।
ধনী আর ক্ষমতাধর ব্যক্তিরা কোন কৌশলে কর ফাঁকি দিয়ে গোপন সম্পদের পাহাড় গড়েছেন- সে তথ্য বেরিয়ে এসেছে এসব নথিতে।
এল সালভাদরের অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, কার্যালয়টি থেকে মোস্যাক ফনসেকার চিহ্ন একদিন আগেই অপসারণ করা হয়। প্রতিষ্ঠানটির একজন কর্মীর সূত্রে জানা যায়, ফার্মটি এখান থেকে চলে যাচ্ছে।
এল সালভাদরের অ্যাটর্নি জেনারেল ডগলাস মেলেনদেজ এই অভিযান তত্ত্বাবধান করেন।
মোস্যাক ফনসেকার এই শাখা থেকেও বিশ্বব্যাপী তাদের ক্লায়েন্টদের সার্ভিস দিতে সক্ষম ছিল।
এল সালভাদরের স্থানীয় একটি পত্রিকার বলা হয়েছে, দেশটির নাগরিকেরা কর্তৃপক্ষকে না জানিয়েই মোস্যাক ফনসেকাকে ব্যবহার করে গোপনে সম্পদ ক্রয় করতো। তবে কোনো ধরনের বে আইনি কাজ করেনি বলে দাবি করেছে ফার্মটি।
বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এরই মধ্যে এ ঘটনায় নাম আসা ব্যক্তিদের বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে। পদত্যাগ করেছেন আইসল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সিগমুন্ড গুনলাগসন। মোস্যাক ফনসেকার নথি বের হওয়ার পরপরই ফ্রান্স সরকার পানামার সেন্ট্রাল আমেরিকান নেশন ব্যাংককে কালো তালিকাভুক্ত করেছে।
প্রতিবাদে পানামাও ফ্রান্সের ব্যাংকগুলোকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে বলে পানামার প্রেসিডেন্টের এক মুখপাত্র সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা দেন।আরিফ, আমাদের সময়.কম