নারীমুক্তির পথ ধরেই মানবমুক্তির পথে অগ্রসর হতে হবে-সিপিবি

60

যুগবার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে এক বিবৃতিতে বাংলাদেশসহ সারা দুনিয়ার নারী সমাজের প্রতি শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জ্ঞাপন করেছেন।

নেতৃবৃন্দ আজ এক বিবৃতিতে বলেছেন, মানুষের প্রকৃত অর্থনৈতিক-রাজনৈতিক-সাংস্কৃতিক মুক্তির আন্দোলনের অপরিহার্য অংশ হচ্ছে নারীমুক্তি আন্দোলন। নারীর পূর্ণ স্বাধীনতা ব্যতীত মানবমুক্তির সংগ্রাম সফল হবে না। নারীমুক্তির বিষয়কে অগ্রাহ্য করে সমাজের সামগ্রিক প্রগতি সম্ভব নয়। ফলে সভ্যতার বিনির্মাণে, সমাজপ্রগতির অপরিহার্য অংশ হিসেবেই নারীমুক্তি আন্দোলনকে অগ্রসর করতে হবে। সমাজের বৈপ্লবিক পরিবর্তন তথা সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠা ছাড়া নারী মুক্তি অর্জন সম্ভব নয়। নারীমুক্তির পথ ধরেই মানবমুক্তির পথে অগ্রসর হতে হবে।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীর ভূমিকা ও অবদানের তাৎপর্যপূর্ণ অগ্রগতি ঘটেছে। কিন্তু এখনো নারীর প্রতি বৈষম্য, শোষণ, নির্যাতন, বঞ্চনা কমেনি; বরং অনেক ক্ষেত্রে বেড়েছে। নারীর প্রতি সামগ্রিক নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন হয়নি। মিডিয়া, কর্পোরেট ব্যবস্থা নারীকে অবমাননাকরভাবে উপস্থাপন করছে। সাম্রাজ্যবাদ, পুঁজিবাদ, মুক্তবাজার, মৌলবাদ, ভোগবাদ নারীর মর্যাদা ও অধিকারকে বিপন্ন করছে। গণতন্ত্রহীনতা, বিচারহীনতায় ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন নারীরা।

বিবৃতিতে সিপিবি’র নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, যুগে যুগে কমিউনিস্টরা মানব সভ্যতার অগ্রগতির জন্য নারীমুক্তির লড়াইয়ে অনন্য ভূমিকা রেখেছেন, নেতৃত্ব দিয়েছেন, জীবন উৎসর্গ করেছেন। আন্তর্জাতিক নারী দিবসের পেছনে রয়েছে নারী শ্রমিকের অধিকার আদায়ের সংগ্রামের ইতিহাস। রাজনৈতিক লক্ষ্য বাদ দিয়ে দিবসটি পালনের কোনো তাৎপর্য নেই। প্রচলিত পুঁজিবাদী-পুরুষতান্ত্রিক সমাজ টিকিয়ে রেখে সংস্কারমূলক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে নারীর প্রকৃত মুক্তি সম্ভব নয়। নারীমুক্তির জন্য সমাজের বৈপ্লবিক পরিবর্তনের লড়াইকে অগ্রসর করতে হবে, পাশাপাশি প্রচলিত সমাজ কাঠামোর মধ্যেই নারীর অধিকার আদায়ের জন্য সোচ্চার হতে হবে। নারী-পুরুষের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় নারীমুক্তির লড়াইকে অগ্রসর করতে হবে।

বিবৃতিতে ৮ মার্চ সারাদেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন করার জন্য নারী সমাজসহ প্রগতিশীল নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।