নতুন সংকটে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট

47

যুগবার্তা ডেস্কঃ দক্ষিণ আফ্রিকার হাইকোর্ট দেশটির প্রেসিডেন্ট জেকব যুমার বিরুদ্ধে কয়েক হাজার কোটি ডলারের দুর্নীতির মামলা তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত পুর্নবিবেচনার পক্ষে রায় দিয়েছে।
আদালত বলেছে, ২০০৯ সালে প্রেসিডেন্ট জেকব যুমার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ খারিজ করার যে সিদ্ধান্ত রাষ্ট্রীয় কৌঁসুলি নিয়েছিল তা ছিল অযৌক্তিক।
তার বিরুদ্ধে কয়েক হাজার কোটি ডলারের অস্ত্র কেনাবেচা চুক্তি নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল। বিচারকরা বলছেন, রাষ্ট্রীয় কৌঁসুলি বিভাগের অ¯’ায়ী পরিচালক তার বিরুদ্ধে প্রায় আটশটি অভিযোগ প্রত্যাহার করার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তা অবিবেচক ছিল।
ওই কৌঁসুলি তখন যুক্তি দিয়েছিলেন যে জেকব যুমার বিরুদ্ধে অভিযোগ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য-প্রণোদিত ছিল এবং তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে নেওয়ার ফলে তার প্রেসিডেন্ট হিসাবে শপথ নেওয়ার পথ প্রশস্ত হয়েছিল।
হাইকোর্টের এই রায় ২০০৯ সালের রাষ্ট্রীয় কৌঁসুলির সিদ্ধান্তের প্রতি বিশাল এক ধাক্কা এবং এর ফলে জেকব যুমাকে আবার তার সততা প্রমাণের লড়াইয়ে সামিল করার পথ খুলে গেল।
বিরোধী দল ডেমোক্রাটিক অ্যালায়েন্স ২০০৯ সালে প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে আদালতে মামলা দায়ের করেছিল।
কয়েক হাজার কোটি ডলারের অস্ত্র চুক্তিতে দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়েছিল জেকব যুমা এবং তার পূর্বসুরী থাবো এমবেকির বিরুদ্ধে।
এখন দেশটির জাতীয় কৌঁসুলি বিভাগকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে তারা দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্টকে দুর্নীতির দায়ে বিচারের কাঠগড়ায় তুলবে কিনা।আমাদের সময়.কম