দেশের প্রথম এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে-মেনন

45

যুগবার্তা ডেস্কঃ দেশের প্রথম এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাকল্পে এক গুরুত্বপূর্ণ সভা আজ দুপুরে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর সদর দপ্তরে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় জানানো হয় বিশ্বজুড়ে এভিয়েশন জগতে বিপুল উন্নয়ন ও প্রবৃদ্ধি ঘটেছে, যা বাংলাদেশের ক্ষেত্রেও সমানভাবে প্রযোজ্য। ইন্টারন্যাশনাল সিভিল এভিয়েশন অর্গানাইজেশন (আইকাও) এর তথ্যানুযায়ী পৃথিবীতে প্রতিবছর বিমান পরিবহনে ২৩০০০ জন পাইলট ও বিমান রক্ষণাক্ষেণে ৩০০০০ জনবল প্রয়োজন। আগামী ২০ বছরে এভিয়েশন সেক্টরে ১৭ হাজার নতুন দ্রুতগামী বাণিজ্যিক বিমানসহ ২৫০০০ নতুন এয়ারক্রাফট, ৪৮০০০০ টেকনেশিয়ন এবং ৩৫০০০০ পাইলট এর প্রয়োজন হবে। এভিয়েশনে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলা এবং বাংলাদেশি এভিয়েশন গ্রাজুয়েটদের আন্তর্জাতিক এভিয়েশন মানসম্পন্ন ও আন্তর্জাতিক খ্যতিসম্পন্ন এভিয়েশন ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বিদেশী শিক্ষার্থীদের আকর্ষণের মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন এবং দেশের মর্যাদা বৃদ্ধিতে এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয় কার্যকর ভূমিকা পালন করবে।
এ প্রতিষ্ঠান স্থাপনের জন্য ঢাকার আশকোনায় সিভিল এািভয়েশনের ১২ একর জমি নির্বাচন করা হয়েছে। এতে লন্ডনের মিডল সেক্স ইউনিভার্সিটি, বার্নেল ইউনিভার্সিটি ও সিটি ইউনিভার্সিটির সাথে এডুকেশন এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রাম থাকবে।
সভায় এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন সংক্রান্ত একটি পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপন করেন এয়ার কমোডর ইয়াজদানী।
সভায় বাংলাদেশ বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল আবু এসরার, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন সচিব এস এম গোলাম ফারুক, সিভিল এভিয়েশনের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এহসানুল গণি চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।