ড. আতিউর রহমানের পদত্যাগ,নতুন গভর্নর ফজলে কবির

121

যুগবার্তা ডেস্কঃ জল্পনা-কল্পনার পর অবশেষে পদত্যাগ করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান , নতুন গভর্নর ফজলে কবির । আজ মঙ্গলবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করার পর তিনি পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রেসসচিব ইহসানুল করিম এ তথ্য জানিয়েছেন।
মঙ্গলবার সকালে এক বিফ্রিংয়ে তিনি জানান, ‘দেশের স্বার্থে আমি পদত্যাগ করতে প্রস্তুত রয়েছি। প্রধানমন্ত্রীর অনুমতির অপেক্ষায় আছি, সম্মান নিয়ে বিদায় নিতে চাই।
আতিউর রহমান দেশের অন্যতম অর্থনীতিবিদ। অর্থনীতির বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে লেখার কারণে তিনি বেশ পরিচিত লাভ করেন। ২০০৯ সালে ১ মে তিনি বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় ব্যাংক বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্ণর হিসেবে নিযুক্ত হন। বাংলা এবং ইংরেজি দুই ভাষাতেই তার লেখা অসংখ্য বই রয়েছে।
জামালপুরে একটি গ্রামে জন্মগ্রহণ তিনি। অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত গ্রামের স্কুলে পড়াশোনা করেছেন। এরপর তিনি ময়মনসিংহ ক্যাডেট কলেজে পড়াশোনা করেন। ছোটবেলা থেকে প্রচন্ড মেধাবী আতিউর রহমান অর্থাভাবে ক্যাডেট কলেজে পড়া প্রায় অনিশ্চিত হয়ে পরে। গ্রামের মানুষের সহযোগিতায় সেদিন তিনি ১৫০ টাকা তুলে কলেজের খরচ তুলেছিলেন। এর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতি নিয়ে মাস্টার্স করেছেন। পরবর্তীতে পিএইচডি করেছেন ইংল্যান্ডে।
কর্মজীবন শুরু করেন বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনে প্ল্যানিং অফিসার হিসেবে এছাড়া দীর্ঘদিন বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বা বি আইডিএস এর রিসার্চ ফেলো ছিলেন প্রায় সাতাশ বছর। এরপর তিনি দায়িত্ব পালন করছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের।
প্রসঙ্গত,যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে গচ্ছিত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার বা ৮০৮ কোটি টাকা চুরির ঘটনা নিয়ে সরকার ও বিভিন্ন মহল থেকে গভর্নরের ওপর চাপের কারণেই তার এই পদত্যাগ।
মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত জানান কবিরকে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে তাঁকে কাজ করতে বলা হয়েছে।’
জানাযায়, নতুন গভর্নর হিসেবে নিয়োগ পাওয়া সাবেক অর্থ সচিব বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। সেখান থেকে তিনি নিয়োগের খবর জানতে পেরেছেন। আগামী ১৮ মার্চ তিনি দেশে ফিরে দ্বায়িত্ব গ্রহণ করবেন।
ফজলে কবির ১৯৮০ সালের অক্টোবরে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের রেলওয়ে (পরিবহন এবং বাণিজ্যিক) ক্যাডারে যোগদানের মাধ্যমে তার কর্মজীবন শুরু করেন। পরে ১৯৮৩ সালে ফজলে কবির বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারে যোগদান করেন। ফজলে কবিরের দীর্ঘ ৩৪ বছরের পেশা জীবনে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়সহ মাঠপর্যায়েও প্রশাসকের দায়িত্ব সুচারুভাবে দক্ষতার সঙ্গে পালন করেন। তিনি কিশোরগঞ্জ জেলার জেলা প্রশাসক, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে টাকা চুরির ঘটনায় তোপের মুখে গভর্নরের পদত্যাগের পর বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য হান্নান শাহ মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনে জাতীয় কাউন্সিল বাস্তবায়ন উপ-কমিটির সভায় বলেছেন, ব্যাংকের নিজার্ভ থেকে অর্থ চুরির দায়ে শুধু গভর্নরকেই পদত্যাগ করলে চলবে না, এজন্য সরকারকেই পদত্যাগ করতে হবে।’