ট্রাম্পের প্রতি সমর্থন স্পিকার রায়ানের

30

যুগবার্তা ডেস্কঃরিপাবলিকান পার্টি নিয়ন্ত্রিত মার্কিন কংগ্রেসের স্পিকার পল রায়ান বলেছেন, এ বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি দলীয় প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে ভোট দেবেন। নিজ শহর উইসকনসিনের দৈনিক গেজেট পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রায়ান এ কথা বলেন।
গত বৃহস্পতিবার রায়ানের এ বক্তব্যের দিনই ক্যালিফোর্নিয়ার স্যানডিয়েগো শহরে এক ভাষণে ডেমোক্রেটিক পার্টির সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন তীব্র ভাষায় প্রেসিডেন্ট পদে ট্রাম্পের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। এই ভাষণ শুরুর কয়েক মিনিটের মধ্যে ট্রাম্পের প্রতি নিজের সমর্থন প্রকাশ করেন রায়ান।
রিপাবলিকান পার্টির এই এক নম্বর নেতা এত দিন ট্রাম্পকে সমর্থন দেওয়ার ব্যাপারে ইতস্তত করছিলেন। বিভিন্ন নীতিগত প্রশ্নে ট্রাম্পের সঙ্গে তাঁর দ্বিমতের কথা উল্লেখ করে রায়ান জানিয়েছিলেন, তিনি দলের এই সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট প্রার্থীকে সমর্থন দিতে এখনো প্রস্তুত নন। ট্রাম্প সে কথার জবাবে বলেছিলেন, তিনিও রায়ানের প্রস্তাবিত এজেন্ডা সমর্থনের জন্য প্রস্তুত নন। অর্থনীতি, বৈদেশিক নীতিসহ বিভিন্ন প্রশ্নে ট্রাম্পের প্রস্তাবিত কর্মসূচি তাঁর কাছে গ্রহণযোগ্য নয় বলে রায়ান জানিয়েছিলেন। তবে গত মাসে ওয়াশিংটনে এক মুখোমুখি বৈঠকের পর এই দুই নেতা নিজেদের মতপার্থক্য কমিয়ে আনতে সক্ষম হন।

ট্রাম্প তাঁর নীতিগত অবস্থান নাটকীয়ভাবে বদলে ফেলেছেন, এ কথা ভাবার কারণ নেই। তা সত্ত্বেও স্পিকার রায়ান যে নিজ মতামত বদলে ফেলেছেন, তার মুখ্য কারণ দলের নেতা-কর্মীদের তরফ থেকে তাঁর ওপর অব্যাহত চাপ। আগামী জুলাইয়ে ক্লিভল্যান্ডে দলের যে সম্মেলনে ট্রাম্পকে আনুষ্ঠানিকভাবে রিপাবলিকান প্রার্থী হিসেবে মনোনীত করা হবে, তার সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন রায়ান। দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ও দলের সভাপতির মধ্যে অব্যাহত দ্বন্দ্ব রাজনৈতিকভাবে ক্ষতিকর, এ কারণে কেন্দ্রীয় ও অঙ্গরাজ্য পর্যায়ের অনেক নেতা-কর্মী ট্রাম্পকে সমর্থনের ব্যাপারে রায়ানের ওপর চাপ দিচ্ছিলেন।

রায়ানের মত পরিবর্তনের অন্য কারণ, অধিকাংশ জাতীয় জরিপে রিপাবলিকান ভোটারদের মধ্যে পল রায়ানের চেয়ে ট্রাম্পের সমর্থন ছিল প্রায় দ্বিগুণ। তাঁকে এ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে রায়ান হেসে বলেন, সেটাই তো হওয়া উচিত। ট্রাম্প দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী; তিনি নন।

ট্রাম্পের প্রতি সমর্থন জানালেও ২০১২ সালে রায়ান যাঁর ভাইস-প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন, সেই মিট রমনি এখনো ট্রাম্পের প্রশ্নে অনমনীয় রয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, কোনো অবস্থাতেই তিনি ট্রাম্পের প্রার্থিতা সমর্থন করবেন না। রমনিসহ একাধিক শীর্ষস্থানীয় রিপাবলিকান নেতা ট্রাম্পের বিকল্প প্রার্থী খোঁজার ব্যাপারে তাঁদের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন।প্রথম আলো