ট্যুরিজম ইন্ডাস্ট্রি টেকঅফের জন্য রানওয়েতে-পর্যটন মন্ত্রী মেনন

যুগবার্তা ডেস্কঃ বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন, ট্যুরিজম ইন্ডাস্ট্রি এখন রানওয়েতে ছুটে চলেছে, এরপর টেকঅফ করবে। তখন বাংলাদেশের রূপের কথা বিশ্বব্যাপি ছড়িয়ে পড়বে।
তিনি বলেন, জনসংখ্যার ৬০ শতাংশের বেশি তরুণ প্রজন্মের, অর্থাৎ আমরা এখন ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড এ আছি। ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত বাংলাদেশ গড়তে তরুণদের সততা, নিষ্ঠা আন্তরিকতা নিয়ে কাজ করতে হবে। এ সব কিছুর মূলমন্ত্র হবে দেশপ্রেম। আমরা আমাদের তারুণ্যকে উৎসর্গ করেছিলাম পরবর্তী প্রজন্মের জন্য একটি স্বাধীন স্বদেশ বির্মিমাণের জন্য। এখন তোমাদের দায়িত্ব দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নেয়া। এ দায়িত্ব তোমরা যথাযথভাবে পালন করছ এই আমার প্রত্যাশা।
তিনি আরও বলেন, সুশাসন গণতন্ত্র এবং উন্নয়ন একসূত্রে গাঁথা। এর যে কোন একটি ক্ষতিগ্রস্ত হলে অপর দুটিও অক্ষত থাকতে পারে না। তাই টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হলে সুশাসন ও গণতন্ত্রের ভিত শক্তিশালী করতে হবে।
তিনি আজ শনিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড (বিটিবি) আয়োজিত টেকসই উন্নয়ন্ন লক্ষমাত্রা অর্জনে ট্যুরিজম সেক্টরের গুরুত্ব এবং তরুণদের অংশগ্রহণ শির্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।
বিটিবি’র সিইও আখতার উজজ্জামান খান কবিরের সভাপতিত্বে সেমিনারে এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সাসটেইনেবল ট্যুরিজম, কমিউনিটি ট্যুরিজম, ও কালচারাল ট্যুরিজমের উপর ধারণাপত্র উপস্থাপণ করেন। পরে মন্ত্রী অংশগ্রহণকারীদের মাঝে সার্টিফিকেট বিতরণ করেন।