টাঙ্গাইল ৮ আসনের প্রার্থীদের তুমুল তুড়জোড় ও গণসংযোগ

টাঙ্গাইল, যুগবার্তা সংবাদদাতা: টাঙ্গাইল-০৮ (বাসাইল-সখীপুর) আসনে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে উন্নয়নের চ্যালেঞ্জ হিসেবে প্রার্থীদের মধ্যে চলছে সব্বোর্চ্চ প্রস্তুতি পরিকল্পনার ও বাস্তবায়ন। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের প্রার্থীরা স্থানীয় পৌরসভা ও উপজেলার সবকটি ইউনিয়নে জনসমর্থন অর্জনের প্রচেষ্টায় চালিয়ে যাচ্ছে তুমুল তোড়জোড়, প্রচার প্রচারনা ও গণসংযোগ। একই সাথে অন্যান্য দলগুলোর প্রার্থীরাও পিছিয়ে নেই। স্থানীয় বিএনপি, কৃষক শ্রমীক জনতালীগ, জাতীয় পার্টির প্রার্থীরাও ইউনিয়নের সবকটি গ্রামে গঞ্জে মাসে ২-৩ বার গণসংযোগ চালাচ্ছন। একাধিক প্রার্থীর সাথে কথা বলে জানা গেছে বাসাইল-সখিপুর কে উন্নয়নের দাড়ঁপ্রান্তে পৌছে নেওয়ার লক্ষ্যে তারা দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।

ইতিমধ্যেই উপজেলার বিভিন্ন মহলে উঠে এসেছে প্রার্থীদের আলাপ আলোচনা। দলীয় প্রার্থীরা দলের অঙ্গসংগঠনের নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে গণসংযোগ ও প্রচরণা চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রার্থীরা এই আসনের শিক্ষা, স্বাস্থ্য,খাদ্য, যোগযোগ ব্যবস্থা, অবকাঠামোগত উন্নয়ন, জনগনের সার্বিক নিরাপত্তা প্রদানের লক্ষ্যে কার্যকরী। একাধিক প্রার্থী বলেন এই আসনের জনগণকে সাথে নিয়ে আমরা উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করব।

স্থানীয়রা জানান, বাসাইল-সখীপুর আসনের সংসদ সদস্য হিসেবে মনোনয়ন প্রত্যাশী তাদের মধ্যে কেউ প্রবীণ রাজনীতিক, আবার কেউবা তরুণ রাজনীতিক।

যারা সংসদ সদস্য প্রার্থী হিসেবে বহুল আলোচিত হয়েছে তাদের মধ্যে আওয়ামীলীগ মনোনয়ন প্রত্যাশী হলেন স্থানীয় সাংসদ সদস্য অনুপম শাহজাহান জয়, টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম (জোয়াহের),বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঢাকা মেডিকেল কলেজ শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা: জাহাঙ্গীর আলম জুয়ল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত শিকদার, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সদস্য উপজেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য অধ্যক্ষ সাঈদ আজাদ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বুয়েট বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ উপকমিটির সাবেক সহ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আতাউল মাহমুদ, টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক জিএম আব্দুল মালেক মিয়া।

বিএনপি মনোনয়ন প্রত্যাশি প্রার্থীরা হলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের সাবেক ব্যক্তিগত আইনজীবি ও বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট আহমেদ আযম খান, টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য শেখ মোহাম্মদ হাবিব।

কৃষক শ্রমিক জনতালীগের প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন জনতালীগ সভাপতি, টাঙ্গাইল ১১ নং সেক্টরের (কাদেরীয়া বাহিনীর) সর্বাধিনায়ক, মুক্তিযোদ্ধের অন্যতম সংগঠক বঙ্গবীর কাদের সিদ্দীকি বীরউত্তম।

জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে রয়েছেন কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব কাজী আশরাফ সিদ্দিকী।