জাপানে বাড়ছে কুমারি নারীর সংখ্যা

যুগবার্তা ডেস্কঃ জাপানে প্রতিনিয়ত অবিবাহিত কুমারি নারী ও কুমার পুরুষের সংখ্যা বাড়ছে। সরকারি একটি জরিপ প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে জাপান টাইমস এ তথ্য দিয়েছে।
জাপানের জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার হ্রাস পাচ্ছে। দেশটিতে বিয়ে করার জন্য কর মওকুফসহ সরকারি বিশেষ প্রণোদনারও ব্যবস্থা রয়েছে। এরপরেও বিয়ের প্রতি জাপানি তরুণ-তরুণীদের আগ্রহ বাড়ছে না। দেশটিতে অবিবাহিত নারী-পুরুষের সংখ্যা বছর বছর বেড়েই চলছে।
জাপানের জনসংখ্যা বিষয়ে প্রতি পাঁচ বছর পর গবেষণা চালায় দেশটির জাতীয় পরিসংখ্যান ইনিস্টিটিউট ও সামাজিক নিরাপত্তা গবেষণা সংস্থা। চলতি বছর সংস্থাটি তাদের গবেষণা প্রতিবেদনে ১৯৮৭ সাল থেকে এ পর্যন্ত নারী-পুরুষ সম্পর্কের সংখ্যাচিত্র প্রকাশ করেছে। এতে দেখা গেছে, ১৯৮৭ সালে প্রথম পরিচালিত জরিপে ১৮ থেকে ৩৪ বছরের ৪৮ দশমিক ৬ শতাংশ পুরুষ ও ৩৯ দশমিক ৫ শতাংশ নারী অবিবাহিত থেকে যাচ্ছে। ২০১০ সালে এটি হ্রাস পেয়ে ৩৬ দশমিক ২ ও ৩৮ দশমিক ৭ শতাংশে এসে দাঁড়ায়।
চলতি বছরের জরিপে দেখা গেছে, পরিস্থিতি আরো খারাপের দিকে গিয়েছে। ৭০ শতাংশ পুরুষ ও ৬০ শতাংশ নারী কোনো ধরণের সম্পর্কে জড়াচ্ছে না। এদের মধ্যে আবার ৪২ শতাংশ পুরুষ ও ৪৪ দশমিক ২ শতাংশ নারী জানিয়েছে তারা এখনো কুমারি। তারা কখনো কারো সঙ্গে যৌন সম্পর্কে জড়ায়নি।
গবেষক দলের প্রধান জুতোশি ইশি বলেন, ‘এসব অবিবাহিত নারী-পুরুষ বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হতে চান। কিন্তু যখন তারা তাদের কল্পিত আদর্শ ও বাস্তবতার মধ্যে ফারাক দেখতে পায় তখন বিয়ে থেকে দূরে সরে আসে। এ কারণে লোকজন হয় দেরিতে বিয়ে করছে নতুবা তারা সারাজীবন নিঃসঙ্গ কাটিয়ে দিচ্ছে, যার ফলে দেশের জন্মহারে নিম্মগতি দেখা দিয়েছে।’