জম্মু-কাশ্মীর ভারতের অংশ নয়: হাইকোর্টের রায়

50

জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের অংশ নয়। সংবিধানে একে সীমিত সার্বভৌম ভূখণ্ডের মর্যাদা দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি রাজ্যটির হাইকোর্ট এই রায় দিয়েছেন।
এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, বিচারপতি হাসনাই মাসুদি ও বিচারপতি জনক রাজ কোতয়ালের ডিভিশন বেঞ্চ এই রায় দেন। ৬০ পৃষ্ঠার এই রায়ে বলা হয়েছে, ভারতের সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদে এই রাজ্যকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়া হয়েছে যা সংশোধন, বাতিল বা রদ করা যাবে না।
আদালত আরো বলেছেন, সংবিধানের ৩৫এ অনুচ্ছেদে বিদ্যমান আইনে কাশ্মীরকে সুরক্ষা দেওয়া হয়েছে। ৩৭০ অনুচ্ছেদকে অস্থায়ী বিধান হিসেবে উল্লেখ করা হলেও একবিংশ ধারায় এটিকে অর্ন্তভুক্ত করা হয়েছে। এই ধারা সংবিধানে ‘অস্থায়ী, অপরিবর্তনশীল ও বিশেষ বিধান’ নামে স্থায়ী স্থান করে নিয়েছে। আইনসভায় এটি সংশোধন, বাতিল অথবা রদ করা যাবে না।
ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) দীর্ঘদিন ধরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের দাবি জানাচ্ছে। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, জম্মু ও কাশ্মীর সরকারের কাছে যত দ্রুত সম্ভব এই রায়ের একটি কপি চেয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। হাইকোর্ট কিসের ভিত্তিতে এই রায় দিয়েছেন তার ব্যাখ্যাও চেয়েছে। আশা করা হচ্ছে রাজ্যের আইন বিভাগ কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে এই কপি পাঠাবে।
ডেইলি পাকিস্তানের খবরে বলা হয়েছে, আদালতের এই রায়কে স্বাগত জানিয়ে স্থানীয় দলগুলো এবং রাজনৈতিক নেতারা, সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিমদের প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন।
পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (পিডিএফ) প্রেসিডেন্ট এবং আওয়ামী মুথিদা মাহাজের (এএমএম) নেতা হাকিম মোহাম্মদ ইয়াসিন এটিকে মাইলফলক রায় হিসেবে উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেছেন, এখন ৩৭০ অনুচ্ছেদকে আরো জোরদার করাই জম্মু ও কাশ্মীর সরকারের চ্যালেঞ্জ।
স্বাধীনতা লাভের পর থেকেই ভারত ও পাকিস্তান উভয় দেশই জম্মু ও কাশ্মীরকে তাদের নিজেদের ভূখণ্ড বলে দাবি করে আসছে। ১৯৪৭-৪৮ সালে জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে এই দুই দেশের মধ্যে প্রথম যুদ্ধ হয়।