জমে উঠেছে বিটিভি চট্টগ্রামের মেগা ধারাবাহিক ‘জলতরঙ্গ’

চট্টগ্রাম অফিস: ‘জলতরঙ্গ’ নাটকের শুরু থেকেই প্রেম-বিরহ, হাসি-কান্না আর সম্পর্কের টানাপোড়েন। নাটকের পরতে পরতে উন্মোচিত হচ্ছে মানব চরিত্রের নানা জটিল রসায়ন ও সমীকরণ। ‘জলতরঙ্গ’ আদ্যোপান্ত নাটকীয়তায় ভরা এক রোমান্টিক নাটক। নাটকের গল্প টার্ন অ্যান্ড টুইস্টে ভরা। চৌধুরী পরিবারের সম্পর্কের নানা সমীকরণ ও টানাপোড়েন নিয়ে এগিয়ে চলছে এ নাটকের কাহিনী। আর এর মধ্য দিয়ে জমে উঠেছে বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) চট্টগ্রাম কেন্দ্রের এ মেগা ধারাবাহিক।
ভারতীয় ও বাংলাদেশী অন্য চ্যানেলগুলোর মতই পূর্ণাঙ্গ টিভি সিরিয়াল ‘জলতরঙ্গ’, তবে কম বাজেট, তারকাবিহীন ও নানা সীমাবদ্ধতায় নির্মিত এ ধারাবাহিক। চৌধুরী (মুনির হেলাল) পরিবারে বহিরাগতদের অনুপ্রবেশ ঘটছে। পরিবারের সদস্যদের মধ্যেই চলছে দ্বন্ধ ও বিশ্বাস-অবিশ্বাসের খেলা। নাটকের ১২তম পর্বে দেখা যায়, আলম চৌধুরী অসুস্থ। তবে তা মানতে নারাজ মেজ ছেলে শফি (সাইফুল আলম বাবু)। তার মতে, এ তার বাবার আরেক অভিনয়, আরেক নাটক! পরিবারের মধ্যে আরেক উটকে ঝামেলা শশুর বাড়ি থেকে উড়ে আসা চৌধুরীর বড় মেয়ে আশা (কংকন দাশ)। চৌধুরী পরিবার কি বিলীন হয়ে যাবে? এমন প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে দর্শকদের মনে।
বিটিভি চট্টগ্রামের পর্দায় ‘জলতরঙ্গ’ এর সম্প্রচার চলছে গত ১ অক্টোবর থেকে। সপ্তাহে চার দিন তথা প্রতি শুক্রবার, শনিবার, রোববার ও সোমবার রাত নয়টায় প্রচার হচ্ছে এটি। পরের দিন সকাল সাড়ে নয়টায় পুনঃপ্রচার করা হয় নাটকটি। ইতিমধ্যে ১২ পর্ব প্রচার হয়েছে। ধীরে ধীরে বাড়ছে এ নাটকের দর্শকপ্রিয়তা, সাথে বিটিভি চট্টগ্রামেরও। ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমে চলছে এ নাটক নিয়ে আলোচনা। নাটকের সিনিয়র ও জুনিয়র, সব শিল্পীই চট্টগ্রামের। সিনিয়র শিল্পীদের অভিনয় দর্শকদের মন জয় করেছে। বিশেষ করে কংকন দাশের অভিনয় উলেøখ করার মত। তবে জুনিয়র শিল্পীদের অভিনয়ে আরো দÿতার প্রমাণ দিতে হবে। বিটিভি চট্টগ্রাম অদূর ভবিষ্যতে এমন ধারাবাহিক আরো নির্মাণ করবে- এমন প্রত্যাশা দর্শকদের।
শ্যামল ভাদুড়ি রচিত নাটকটি প্রয়োজনা করেছেন অরিন্দম মুখার্জী বিংকু। সার্বিক তত্বাবধায়নে বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) নিতাই কুমার ভট্টাচার্য। নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন মুনির হেলাল, সাবিরা সুলতানা বীনা, সাইফুল আলম বাবু, মোহাম্মদ আলী টিটো, নাজমা খাতুন, কঙ্কন দাশ, বাপ্পি হায়দার, শেখ আনিস মঞ্জুর সেন্টু, ফৌজিয়া তামান্না, জিলøুর রহমান, সুচরিত দাশ খোকন, কুন্তল বড়ুয়া, মাহবুবুল ইসলাম রাজিব, মিখাইল রফিক, মোশারফ ভূঁইয়া পলাশ, রিপন বড়ুয়া, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, পংকজ বৈদ্য সুজন, এমএ রহিম, রুপায়ন বড়ুয়া, ইউনুস রানা, পলি চৌধুরী, প্রান্ত শর্মা, জয়নাল আবেদিন, সালমান চৌধুরী, আশরাফুল করিম সৌরভ, নাছরিন হীরা, শিমলা, ঋষিকা দাশ, আলী প্রমুখ।