জঙ্গিবাদের পাহারাদার খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে বিদায় করতে শেষ যুদ্ধটি আমাদের করতে হবে-ইনু

72

যুগবার্তা ডেস্কঃ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সমালোচনা করে তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, জঙ্গিবাদের পাহারাদার খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে বিদায় করতে শেষ যুদ্ধটি আমাদের করতে হবে। যারা জেনে-বুঝে মিটমাটের কথা বলছেন, তারা আগুনসন্ত্রাসীদের বাংলাদেশের রাজনীতিতে জায়গা দেওয়ার চক্রান্ত করছেন।
শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধনী অধিবেশনে সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে জাসদ সভাপতি বলেন, আগুনসন্ত্রাসী ও জঙ্গিনেত্রী খালেদা জিয়া বড় আক্রমণের প্রস্তুতি নিচ্ছে। তিনি এখন দম ফেলার চেষ্টা করছেন, শক্তি সঞ্চয় করছেন। একদিকে গণতন্ত্রের জন্য মায়া করছেন, অন্যদিকে কৌশল পাল্টিয়ে চূড়ান্ত আক্রমণ হানার চেষ্টা করছেন।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, যুদ্ধপরিস্থিতি চলছে। খালেদা জিয়া পিঁছু হটায় এবং যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চলায় আপাতত মনে হতে পারে যে পরিস্থিতি শান্ত। কিন্তু বিএনপি ও খালেদা এখনো ক্ষমা চায়নি, আত্মসমর্পণ করেনি, তওবা করেনি। তাই বিপদ রয়েই গেছে। উপরে উপরে পরিস্থিতি শান্ত হলেও, যুদ্ধ ও সংকট রয়েই গেছে।
হাসানুল হক ইনু বলেন, খালেদা জিয়াকে জঙ্গি পুনরুৎপাদনের কারখানা ও জঙ্গি লালনকারী মাতা।
তিনি বলেন, পরিত্যক্ত রাজনৈতিক আবর্জনা, বর্জ্য, সামরিক শাসনের আবর্জনা, সাম্প্রদায়িক আবর্জনা প্রমাণ করেছে যে বাংলাদেশের গণতন্ত্র শক্তিশালী হয়নি। বরং দুর্গন্ধ ছড়িয়েছে, সুযোগ পেলেই ছোবল মেরেছে যোগ করেন।
খালেদা জিয়াকে ‘জঙ্গি পুনরুৎপাদনের কারখানা ও জঙ্গি লালনকারী মাতা’ আখ্যা দিয়ে তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশকে আফগানিস্তান ও পাকিস্তান বানানোর ষড়যন্ত্র এখনো চলছে। তাই তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে জয়ী হতেই হবে।
সভায় আরও বক্তব্য দেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও বিমানমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, দলের সাধারণ সম্পাদক শরীফ নুরুল আম্বিয়া ও কার্যকরি সভাপতি মঈন উদ্দিন খান বাদলসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।
উল্লে­খ্য, দীর্ঘ ছয় বছর পর আজ শনিবার দলটির রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে জাতীয় কাউন্সিলে নুতন নেতৃত্ব নির্বাচিত হবে।